Latest News

চোপড়ায় ছেলেকে মেরে পুঁতে দিল বাবা! সঙ্গ দিল দাদাও, কাকপক্ষীতেও টের পেল না

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর দিনাজপুর: নিজের ছেলেকে খুন করে মাটিতে পুঁতে দিল বাবা (Father), সঙ্গ দিল দাদাও (Brother)! টের পেল না কাকপক্ষীতেও। দিন পনেরো পর মাটি খুঁড়ে সেই মৃতদেহ (Murder) উদ্ধার করল পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের চোপড়া (Chopra) থানার ভক্তডাঙী গ্রামে। মৃতের নাম সমীর বালা। তার বাবার নাম হরসিত বালা। সমীর গত কয়েকদিন ধরেই নিখোঁজ ছিল বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা। অনেক খোঁজাখুঁজি করা হলেও তার কোনও সন্ধান মেলেনি। কিছুদিন আগে তাদের বাড়ির পাশ থেকে দুর্গন্ধ বের হয়। তখনই সন্দেহের বশে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় চোপড়া থানার পুলিশ। দুর্গন্ধ যেখান থেকে বেরোচ্ছে, সেই জায়গাতে খোঁড়াখুঁড়ি শুরু হয়। দেখা যায়, মাটির নীচে প্রচুর পোলট্রি মুরগির দেহ পোঁতা রয়েছে। পরিবারের লোকজনকে জিজ্ঞেস করলে তারা জানায়, অনেক মুরগি মারা গিয়েছিল বলে তাদের সেখানে পুঁতে রাখা হয়েছে, তাই এই দুর্গন্ধ।

কিন্তু পুলিশ এরপরেও তদন্ত চালিয়ে যায়। বাড়ির কর্তা হরসিত বালা এবং তার বড় ছেলে খোকন বালাকে থানায় ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সেখানেই দোষ কবুল করে দুজন। বাবা আর দাদা মিলে ষড়যন্ত্র করে মেজ ছেলেকে খুন করেছে বলে স্বীকার করে তারা। পুলিশকে দুজন জানায়, সমীর মাঝেমধ্যেই মদ খেয়ে বাড়িতে এসে জমিজমার জন্য অশান্তি করত, চাইত সম্পত্তির ভাগ। সেই অশান্তির হাত থেকে মুক্তি পেতে বাবা আর দাদা মিলে এই কাণ্ড করেছে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে এরপর যুবকের মৃতদেহ মাটির নীচ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত চলছে।

আরও পড়ুন: চোর সন্দেহে পরিচারিকাকে বিবস্ত্র করে মারধর! দিল্লিতে নারকীয় কাণ্ড

You might also like