Latest News

‘মানিকজোড়’কে কি মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চলেছে ইডি?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় মানিক ভট্টাচার্যকে (Manik Bhattacharya) গ্রেফতার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (Enforcement Directorate)। আপাতত ১৪ দিন ইডি হেফাজতে থাকবেন তিনি এখন প্রশ্ন হচ্ছে, এবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়কেও (Partha Chatterjee) কি ফের ইডি নিজেদের হেফাজতে চেয়ে আদালতে আবেদন জানাবে?

প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীকে গ্রেফতার করেছিল ইডি। তারপর কয়েক দফা ইডি হেফাজতের পর বর্তমানে তিনি আলিপুর সংশোধনাগারে রয়েছেন। রাজনৈতিক মহলের কথায়, মানিক গ্রেফতার হওয়ার পরেই ফের নতুন করে পার্থকে ইডি হেফাজতে নেওয়ার তোড়জোড় শুরু হতে পারে।

কেন? এর আগে পার্থর নামে ইডি যে চার্জশিট আদালতে জমা দিয়েছিল তার ছত্রে ছত্রে ছিল মানিক ভট্টাচার্যের নাম। রাজনৈতিক মহলে মানিক, পার্থর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও সতীর্থ বলেই পরিচিত। এমনকি চার্জশিটে ইডি দাবি করেছিল, গ্রেফতারের সময় পার্থর যে স্মার্টফোন বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল সেখানে মানিকের নাম ‘মানিক ভট্টাচার্য ল’ বলে সেভ করা রয়েছে।

সেই মোবাইলের চ্যাট ঘেঁটে তদন্তকারী অফিসাররা জানতে পারেন যে, ২০২০ সালের ১২ ডিসেম্বর পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে মানিক ভট্টাচার্য প্রাইমারি টেটের ইন্টারভিউর ব্যাপারে মেসেজ করে লিখেছিলেন, ‘দশ মিনিট দিস কাল বাড়ি যাব’। জবাবে পার্থ লেখেন ওকে। অর্থাৎ এই নিয়োগে যে দু’জনের ভূমিকা রয়েছে সেটাই স্পষ্ট করতে চেয়েছে ইডি।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের সময়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী, আর মানিক ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের চেয়ারম্যান। ইডি সূত্রে বলা হচ্ছে, এঁরা ছিলেন মানিকজোড়! সেই সূত্র ধরেই ইডি মানিককে ডেকে পাঠায়। ইডি সূত্রের খবর ছিল, জিজ্ঞাসাবাদে অসহযোগিতা ও জবাবে অসঙ্গতি থাকায় মানিক ভট্টাচার্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এই নিয়োগ মামলায় জেল হেফাজতে থাকার সময় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছিল ইডি। এখন তদন্তের স্বার্থের ‘মানিকজোড়’কে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে পারে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দল। যদিও তার জন্য ইডিকে ফের আদালতে আবেদন জানাতে হবে। মানিক গ্রেফতার হওয়ার পর তদন্তের গতিপ্রকৃতি কোন খাতে বয় সেটাই দেখার।

মানিকের পরিবারের সদস্যদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে বিপুল টাকার হদিশ, আদালতে জানাল ইডি

You might also like