Latest News

পার্থর জামাইকে চোখা প্রশ্ন ইডির, স্কুল গড়তে নগদে ১৫ কোটি কে দিয়েছিল?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একদা প্রশাসনিক বৈঠকে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, শ্বশুরের কামাই খাচ্ছে জামাই!

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) জামাইয়েরও কি সেরকম ব্যাপার? কেন্দ্রীয় এজেন্সি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (enforcement directorate) তথা ইডি অন্তত সেরকমই দাবি করছে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্যকে (kalyanmoy Bhattacharya) যে ইডি নোটিস পাঠিয়েছে সে খবর দ্য ওয়ালে সবার আগে লেখা হয়েছিল। এর আগে ইডি-র দু’বার নোটিস দেওয়ার পরেও হাজিরা দেয়নি কল্যাণময়। কিন্তু সোমবার দুপুরে সল্টলেকে সিজিও কমপ্লেক্সে ইডি দফতরে পৌঁছে যান পার্থর জামাই। তার পর তাঁকে ম্যারাথন জেরা শুরু করেন ইডি অফিসাররা।

প্রশ্ন হল, নিয়োগ দুর্নীতির সঙ্গে পার্থর জামাই কীভাবে জড়িত?

ইডি সূত্রের দাবি, পার্থ দুর্নীতি করে রোজগার করেছিল সেই টাকা জামাইয়ের ব্যবসায় ঢেলেছেন। বলা ভাল, শ্বশুরের বেআইনি টাকায় ব্যবসা বাড়িয়েছেন জামাই। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী বাবলি চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর পর তাঁর নামে একটি ট্রাস্ট গঠন করা হয়। পার্থর জামাই ওই ট্রাস্টের সদস্য। তা ছাড়া পিংলায় ৪৫ একর জমিতে বাবলি চ্যাটার্জি মেমোরিয়াল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল নামে যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৈরি করা হয়েছে কল্যাণময় হলেন তার চেয়ারম্যান।

ইডি সূত্রের দাবি, একাধিক প্রক্সি ব্যবহার করে স্কুলের জন্য জমি কিনেছিলেন কল্যাণময় ভট্টাচার্য। শুধু তাই নয়, জমি কেনা, মাটি ফেলা, ইট, সিমেন্ট, রডের টাকা নগদে অর্থাৎ ক্যাশে দেওয়া হত। হিসাব করে দেখা গিয়েছে, অন্তত ২০ কোটি টাকা ক্যাশ ঢালা হয়েছে ওই স্কুল তৈরির জন্য। সোমবার এই প্রতিটি লেনদেন ধরে ধরে পার্থর জামাইকে জেরা করেছেন ইডি অফিসাররা। তাঁকে টাকার উৎস্য নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছে। স্কুল নির্মাণের জন্য যে কোটি কোটি টাকা ক্যাশ খরচ করা হল, তা কোথা থেকে এল? তা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের টাকা কিনা তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

কৌতূহলের বিষয় হল, পার্থর জামাইকেও কি গ্রেফতার করতে পারে ইডি? কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি সূত্রে সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে না।

কলকাতার আবার বেআইনি টাকার খোঁজ, গুণতে মেশিন আনছে ইডি

You might also like