Latest News

পার্থ গ্রেফতারের পর তিন বার ফোন করেছিলেন মমতাকে, দাবি ইডির অ্যারেস্ট মেমোয়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: স্কুল সার্ভিস দুর্নীতি কাণ্ডে পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) গ্রেফতার হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) তিন বার ফোন করেছিলেন বলে দাবি করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ED)। ইডি-র ওই অ্যারেস্ট মেমো ফাঁস নিয়েও রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়ে গিয়েছে। শাসক দল তৃণমূলের অনেকের মতে, ইডি এখন পুরোপুরি বিজেপির শরিকের মতো আচরণ করছে। এই মেমো ফাঁসই তার প্রমাণ।

ইডির যে অ্যারেস্ট মেমো পাওয়া গিয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সরকারিভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে শুক্রবার রাত তথা শনিবার ভোর ১ টা ৫৫ মিনিটে। ইডির মেমোয় লেখা রয়েছে, তার পর ভোর ২ টো বেজে ৩৩ মিনিটে একবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করেছিলেন পার্থ। কিন্তু তখন মুখ্যমন্ত্রী ফোন ধরেননি। তার পর ফের ৩ টে বেজে ৩৭ মিনিটে ফোন করেছিলেন মমতাকে। পরে শনিবার সকাল ৯ টা ৫৫ মিনিটে পার্থ পুনরায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করেন। কিন্তু কোনও বারই কোনও সাড়া পাননি।

শনিবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করার পর তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন ইডি অফিসাররা। সেখানেও হাসপাতাল থেকে বেরোনোর সময়ে পার্থ বলেন, তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করেছিলেন কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি।

পার্থর এই দাবি নিয়ে সেদিন পাল্টা প্রশ্ন তুলেছিল তৃণমূল। দলের সদর দফতরে সাংবাদিক বৈঠক করে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেছিলেন, যখন কারও বাড়িতে গিয়ে ইডি জেরা করে তখন সবার আগে ফোনটা নিয়ে নেওয়া হয়। ফোন নিয়ে নিলে পার্থদা কল করল কী ভাবে?

ইডি সূত্রে বলা হচ্ছে, কাউকে গ্রেফতার করার পর তাঁকে তাঁর আইনজীবী বা ঘনিষ্ঠজনকে ফোন করে খবর দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। সেই মোতাবেক সুযোগ দেওয়া হয়েছিল পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে।

তৃণমূল এ ব্যাপারে দলগতভাবে এখনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি। কিন্তু ইডি-র এই অ্যারেস্ট মেমো ফাঁস নিয়ে ঘরোয়াভাবে অনেকেই ক্ষোভের জ্বালামুখ খুলে দিচ্ছেন। তাঁদের অভিযোগ, এই রেকর্ড দেখিয়ে তৃণমূলকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। এটা রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র। এবং পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে সেই ষড়যন্ত্রে ইডি-সিবিআই পুরোদস্তুর এখন বিজেপির শরিক।

আরও পড়ুন: অর্পিতার মামাবাড়িতে গিয়ে ছিপ ফেলে মাছ ধরতেন পার্থ, বারুইপুরে ‘বিশ্রাম’ নিয়েও জোর চর্চা

You might also like