Latest News

রামদেবের মন্তব্যের প্রতিবাদে আজ দেশজুড়ে ‘কালো দিবস’, একজোট চিকিৎসক সংগঠনগুলি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অ্যালোপ্যাথি-বিতর্ক কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না রামদেবের। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের সতর্কবার্তা পেয়ে মন্তব্য প্রত্যাহারের ঘোষণা করেছিলেন তিনি। কিন্তু এরপরেও ক্ষোভে ফুঁসছে দেশের চিকিৎসক মহল। তাই যোগগুরুর বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা না নেওয়ার প্রতিবাদে আজ, ১ জুন, ‘কালো দিবস’ পালনের হুঁশিয়ারি দিয়েছে একাধিক চিকিৎসক সংগঠন।

কিছুদিন আগে বাবা রামদেবের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। যেখানে তিনি অ্যালোপ্যাথিকে ‘বোকা’ এবং ‘দেউলিয়া হয়ে যাওয়া বিজ্ঞান’ বলে দেগে দেন। শুধু তাই নয়। যোগগুরু দাবি করেন, অতিমারীর জেরে যত লক্ষ মানুষ মারা গেছেন, তার চেয়েও অনেক বেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে চিকিৎসা করাতে গিয়ে।

এই মন্তব্যের পরেই বিতর্ক ঘনিয়ে ওঠে। রামদেব পরিচালিত সংস্থা ‘পতঞ্জলি’-র তরফে ড্যামেজ কন্ট্রোলের চেষ্টা হয়। তারা জানায়, রামদেবের বক্তব্যকে খাপছাড়াভাবে তুলে ধরা হয়েছে। পুরো বক্তব্য শোনানো হয়নি। তিনি আদপে কখনও আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের বিরুদ্ধে নন।

কিন্তু এরপরেও চিকিৎসকদের ক্ষোভ কমেনি। উল্টে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন রামদেবকে নিঃশর্ত ক্ষমাপ্রার্থনার দাবি জানিয়ে নোটিস পাঠায়। ১৫ দিনের মধ্যে তা না করা হলে মানহানির মামলা করারও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেও ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানায় আইএমএ।

কিন্তু এতকিছুর পরেও কেন্দ্র কোনও পদক্ষেপ না নেওয়ায় বাধ্য হয়ে প্রতিবাদের রাস্তায় হেঁটেছেন দেশের চিকিৎসকেরা। এমনটাই দাবি দ্য ফেডারেশন অব রেসিডেন্ট ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন (ফোরডা)-র। টুইটারে ঘোষিত বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, ‘আজ দেশের সমস্ত চিকিৎসাকেন্দ্রে কালা দিবস পালিত হবে। পরিষেবা স্বাভাবিক রেখেই প্রতিবাদ জানাব। আমরা চাই, রামদেব সকলের উদ্দেশে নিঃশর্ত ক্ষমাপ্রার্থনা করুন। যদি তা না করেন, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে মহামারী আইন মেনে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হোক।’

আইএমএ-ও এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছে। নির্ধারিত কর্মসূচি মেনে আজ চিকিৎসকেরা কালো ব্যাজ পরে কর্মক্ষেত্রে আসবেন বলে খবর।

You might also like