Latest News

পুজোর পর ধেয়ে আসছে জোড়া নিম্নচাপ, দ্বাদশী থেকেই দুর্যোগ শুরু দক্ষিণবঙ্গে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পুজোর শেষ তিন দিন দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির (Rain) সতর্কতা জারি করেছিল আবহাওয়া দফতর। শুক্রবার দশমীতেও সিঁদুর খেলার আনন্দ মাটি করতে পারে নিম্নচাপের বৃষ্টি, পূর্বাভাস তেমনটাই। তবে পুজোর পরেও পিছু ছাড়ছে না বিদায়ী বর্ষা। ফের চোখ রাঙাচ্ছে জোড়া নিম্নচাপের ভ্রূকুটি।

দশমীতেও পিছু ছাড়ছে না বৃষ্টি! দক্ষিণবঙ্গের সাত জেলায় ঝড়-জলের পূর্বাভাস

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, পুজোর পর দ্বাদশী থেকেই ফের দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া টের পাবেন দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। জোড়া নিম্নচাপের প্রভাবে ভারী বৃষ্টি হবে জেলায় জেলায়। সঙ্গে থাকবে ঝোড়ো হাওয়ার দাপটও। আগামী ১৭ ও ১৮ অক্টোবর এই কারণে মৎস্যজীবীদেরও সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

আবহাওয়া সূত্রের খবর, রবিবার দুর্যোগ ঘনাবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর দক্ষিণবঙ্গের এই চার জেলায় ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইবে রবিবার থেকেই। বাদ যাবে না কলকাতা, হাওরা, হুগলিও।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, এই মুহূর্তে বঙ্গোপসাগর ও আরব সাগরে দু’টি নিম্নচাপ রয়েছে। দক্ষিণ পূর্ব আরব সাগরে রয়েছে একটি নিম্নচাপ। অন্য নিম্নচাপটি পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এটি ক্রমশ দক্ষিণ ওড়িশা ও অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে পৌঁছবে। এখন যাঁরা সমুদ্রে রয়েছেন শনিবারের মধ্যেই তাঁদের উপকূলে ফিরে আসতে বলা হয়েছে। রবিবার থেকেই নিম্নচাপের জেরে উত্তাল হবে সমুদ্র। রবিবার আর সোমবার যাতে কেউ সমুদ্রে না যায়, সেদিকে কড়া নজর রাখবে প্রশাসন। গাঙ্গেয় দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টি চলবে মঙ্গলবার পর্যন্ত।

এদিকে দশমীর সকাল থেকে কলকাতা ও লাগোয়া অঞ্চলে রোদ উঠেছে ঝলমলিয়ে। তবে বেলা বাড়লে বজ্রবিদ্যুত-সহ বৃষ্টি হতে পারে, জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like