Latest News

কিশোরীকে ধর্ষণ করল ম্যানেজার, কুকীর্তি ফাঁস হতেই খাইয়ে দিল ফিনাইল! দিল্লিতে নারকীয় কাণ্ড

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ১৫ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের (Rape) অভিযোগ উঠেছে দিল্লিতে (Delhi)। অভিযুক্ত খোদ কারখানার ম্যানেজার। কিশোরীর পরিবারের অভিযোগ, ধর্ষণের পর তাকে ধরে বেঁধে ফিনাইলও খাইয়ে দেওয়া হয়েছে।

দিল্লির একটি জুতোর কারখানায় কাজ করত বছর পনেরোর ওই কিশোরী (Minor rape)। তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া অন্যায়ের খবর পুলিশের কানে গেছে মূল ঘটনার প্রায় সপ্তাহ দুয়েক পর। শনিবার অভিযুক্ত ওই ম্যানেজারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কিশোরীর মেডিকেল পরীক্ষা করে ডাক্তাররা জানিয়েছেন তাকে ক্ষতিকর পদার্থ খাইয়ে দেওয়া হয়েছিল।

সংবাদমাধ্যমের কাছে কিশোরীর বাবা জানিয়েছেন, তাঁর মেয়ে গত ২ জুলাই কারখানা থেকে বাড়ি ফিরে কাউকে কিছুই জানায়নি। তবে গোটা ঘটনার কথা তিন দিন পর জানিয়ে সে দিয়েছিল দু’জন সহকর্মীর কাছে। অফিসে জানাজানি হতেই নাকি রুদ্রমূর্তি ধারণ করে ওই ম্যানেজার। সে ওই কিশোরীকে জোর করে বাথরুম পরিষ্কার করার ফিনাইল খাইয়ে দেয় বলে অভিযোগ।

দিল্লির এইমস হাসপাতালে এখন কিশোরীর চিকিৎসা চলছে। নির্যাতিতা কিশোরীর মুখ জ্বলে গেছে, সে কথা বলতেই পারছে না। খাওয়া তো দূর, সামান্য জলটুকুও খেতে পারছে না সে।

নির্যাতিতার বাবার বয়ান অনুযায়ী গত ২ জুলাই কারখানার ম্যানেজার ওই কিশোরীকে জানায় তার স্ত্রী অসুস্থ। তাই সাহায্য চাই। এই বলে কিশোরীকে সে নিজের বাড়িতে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ। এখানেই শেষ নয়, যখন বাড়িতে ওই ম্যানেজার কিশোরীর উপর নির্যাতন করছে, তখন পিছন থেকে ম্যানেজারের স্ত্রীই তার হাত ধরে রেখেছিল বলে অভিযোগ। স্ত্রীর চোখের সামনেই বাচ্চা মেয়েটিকে ধর্ষণ করেছে অভিযুক্ত।

জুতোর কারখানার ওই ম্যানেজারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, খুনের চেষ্টার অভিযোগ এবং শিশু নির্যাতনের মামলা রুজু হয়েছে। নির্যাতিতার বয়ান এখনও রেকর্ড করা যায়নি।

আরও পড়ুন: দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্তের নির্দেশ! স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় ধুন্ধুমার তামিলনাড়ুর স্কুলে

You might also like