Latest News

নথি অনুযায়ী তিনি মৃত! বেঁচে থাকা সত্ত্বেও সরকারি ভুলে পেনশন আটকে বৃদ্ধের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জলজ্যান্ত একটা মানুষ। দিব্যি সুস্থ স্বাভাবিক ভাবে বেঁচেও আছেন (alive) তিনি। কিন্তু সরকারের খাতায় কলমে তিনি নাকি ‘মৃত(dead)।’ আর সেই কারণেই বেজায় বিপাকে পড়েছেন উত্তরপ্রদেশের (uttar Pradesh) বৃদ্ধ। সরকারি নথি (Govt records) অনুযায়ী যেহেতু তিনি জীবিত নেই, তাই প্রাপ্য পেনশনটুকু (pension) তুলতে পারছেন না তিনি।

হ্যাঁ, এমনই বিপদে পড়েছেন তিলহারের ফতেপুর গ্রামের বাসিন্দা ৭০ বছর বয়সি ওম প্রকাশ। তিনি জানিয়েছেন, সমস্যার শুরু হয় এক বছর আগে। পেনশন তুলতে গিয়ে বাধা পান তিনি। তাঁকে বলা হয়, তিনি পেনশনের টাকা তুলতে পারবেন না। কারণ জানতে চাওয়ার পর ব্যাঙ্কের আধিকারিকের উত্তর শুনে স্তম্ভিত হয়ে যান ওম প্রকাশ। তাঁকে বলা হয়, সরকারি নথি অনুযায়ী তিনি এখন আর জীবিত নেই। সেই কারণেই প্রাপ্য টাকা তুলতে পারবেন না তিনি।

কীভাবে এমন ভুল তথ্য সরকারের কাছে গিয়ে পৌঁছাল, সেই রহস্যের সমাধান হয়নি এখনও। কিন্তু রহস্য যাই হোক, তার জন্য মহা মুশকিলে পড়েছেন তিনি। আখ চাষ করে পেট চলে তাঁর। কিন্তু টাকার অভাবে সেই আখ-ক্ষেতে জলসেচের ব্যবস্থাও করতে পারছেন না ওম প্রকাশ।

গত এক বছরে নিজেকে জীবিত প্রমাণ করার জন্য আধিকারিকদের দরজায় দরজায় ঘুরে জুতোর শুকতলা খইয়ে ফেলেছেন ওম প্রকাশ। কিন্তু লাভ হয়নি কিছুতেই। ‘যেহেতু সরকারি নথি অনুযায়ী আমি এখন মৃত, তাই নিজের জমানো টাকাও এখন তুলতে পারছি না। কেউ আমাকে কোনও সাহায্যও করছে না,’ দাবি বৃদ্ধের।

তিলহারের রেভিনিউ অফিসার জ্ঞানেন্দ্র সিংহ জানিয়েছে, বিষয়টি তাঁর নজরে এসেছে। এ বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। পুরো ঘটনা জানার জন্য ওম প্রকাশের বাড়িতে তিনি তদন্তকারীদের একটি দলকে পাঠাবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন। ‘বেঁচে থাকার পরেও যদি নথিপত্রে ওঁকে মৃত দেখানো হয় থাকে, তাহলে সেই ভুল শুধরে নিয়ে ওঁর প্রাপ্য মিটিয়ে দেওয়া হবে। এমন ভুল যাঁরা করেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে,’ জানিয়েছেন তিনি।

কাবুলের রুশ দূতাবাসের সামনে ভয়াবহ বিস্ফোরণ! প্রাণ গেল দুই রাষ্ট্রদূত সহ অন্তত ২০ জনের, আহত বহু

You might also like