Latest News

করোনা আবার বাড়ছে, কড়া কোভিড বিধি মানতে নির্দেশিকা জারি নবান্নের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশজুড়ে আবারও তাণ্ডব করছে করোনা (Covid)। ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের হার। রাজ্যে রাজ্যে বাড়ছে করোনার প্রকোপ। এমন পরিস্থিতিতে ফের নিয়মবিধি মেনে চলার নির্দেশ দিল রাজ্য সরকার। করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের সময়েও কড়া নির্দেশিকা জারি হয়েছিল। এরপরে সংক্রমণ কমে যাওয়ায় কোভিড বিধি শিথিল করা হয়েছিল। এখন আবার সংক্রমণ মাথাচাড়া দেওয়ায় নবান্নের তরফে নতুন অ্য়াডভাইজারি জারি করা হয়েছে।

কী কী বলা হয়েছে নির্দেশিকায়?

অ্যাসিম্পটোমেটিক বা উপসর্গহীন Covid যাঁরা এবং ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নেওয়া আছে এমন ব্যক্তিরাই কোনও জমায়েতে যেতে পারেন।

ভ্যাকসিন সকলে নিয়েছেন কিনা সে নিয়ে আবারও ক্যাম্পেন শুরু করতে হবে। প্রয়োজন হলে দরজায় দরজায় গিয়ে ভ্যাকসিন দিতে হবে।

যে স্বাস্থ্যকর্মী ও ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কাররা Covid বহু মানুষের সংস্পর্শে আসছেন তাঁদের অবশ্যই ভ্যাকসিনের দুটো ডোজ নেওয়া থাকতে হবে।

বয়স্কদের ভ্যাকসিনের দুটো ডোজের সঙ্গে বুস্টার ডোজ নিতেই হবে। বিশেষ করে যাঁদের নানারকম কোমর্বিডিটি রয়েছে যেমন হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস, ক্রনিক লিভার, ফুসফুস, কিডনির রোগ থাকলে বুস্টার ডোজ বাধ্যতামূলক করা হবে।

ভিড় বা জমায়েতে গেলে পারস্পরিক দূরত্ব মানতে হবে, সেই সঙ্গে মাস্ক, ফেস কভার বা ফেস শিল্ড পরতেই হবে।

দোকান-বাজার, গন পরিবহন পুরোপুরি জীবাণুনাশক করতে হবে।

পাবলিক প্লেসগুলিতে আবারও থার্মাল স্ক্রিনিং ও স্যানিটাইজেশন চালু করতে হবে।

নবান্ন কিছুদিন আগেই জানিয়েছিল, করোনা (Corona) কমতে শুরু করার পরেই বিধিনিষেধের রাশ আলগা করা হয়েছিল। কঠিন করোনা বিধি মানতে হবে না এমন ঘোষণাই করা হয়েছিল সরকারের তরফে। কিন্তু মাস্ক পরা ও সোশ্যাল ডিস্টেন্সিং মেনে চলতে নিষেধ করা হয়নি। নবান্ন জানাচ্ছে, মাস্ক পরা বন্ধ করে দিতে হবে এমন কোনও নির্দেশিকা জারি করা হয়নি। কোভিড কমে যাওয়ায় মানুষজন নিজে থেকেই মাস্ক পরা বন্ধ করে দিয়েছেন। রাস্তাঘাটে, গণপরিবহনে এখন খুব কম লোকজনই আছেন যাঁরা মাস্ক পরেন। কড়াকড়ি না থাকায় এবং আইনি পদক্ষেপ তুলে নেওয়ায় মাস্ক পরা বা পারস্পরিক দূরত্ব বিধি মানার অভ্যাসই চলে গেছে। এর ফলেই সংক্রমণ ফের মাথা চাড়া দিচ্ছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

অ্যাপেনডিক্স অপারেশন করতে গিয়ে পায়ুর শিরা কেটে দিলেন চিকিৎসক! মৃত্যু আসানসোলের গৃহবধূর

You might also like