Latest News

Congress: ‘এক পরিবার-এক টিকিট’, ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের পথে কংগ্রেস

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ধরা যাক ২০২৪-এর লোকসভা ভোট হচ্ছে। কংগ্রেস (Congress) দফায় দফায় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করছে। দেখা গেল, রায়বেরিলিতে নেই সনিয়া গান্ধী। প্রিয়ঙ্কা গান্ধী বঢড়াকেও টিকিট দেয়নি দল। একমাত্র রাহুল গান্ধী প্রার্থী গান্ধী পরিবার থেকে। কেমন হবে?

এমনই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের পথে হাঁটতে চলেছে কংগ্রেস। সূত্রের খবর, সোমবার দিল্লিতে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে এ ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়ে গিয়েছে। আগামী শুক্রবার থেকে রাজস্থানের উদয়পুরে অনুষ্ঠিত হতে চলা কংগ্রেসের চিন্তন শিবিরে তা পেশ করা হবে। সেখানে কী আলোচনা হচ্ছে তা দেখে নিয়ে এক পরিবার-এক টিকিট নীতিতে আগামী রবিবারের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে সিলমোহর দিয়ে দেবে দল। কিন্তু এটা কি সকলের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য?

কংগ্রেসের (Congress) কি কেউ বলছেন, গান্ধী পরিবার এ ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম হতে পারে। দলই চাইবে না সনিয়া গান্ধী বা রাহুল গান্ধীর মধ্যে যে কোনও একজন লড়ুন। আবার কেউ কেউ বলছেন, নীতি গ্রহণ করলে তা নেতৃত্বকেই প্রথম প্রয়োগ করতে হয়। ‘ওয়ান ফ্যামিলি-ওয়ান টিকিট’ ঢাক পিটিয়ে বলা হবে অথচ শীর্ষ নেতৃত্বের ক্ষেত্রে তা অন্যথা হলে সেটা বিজেপির হাতে অস্ত্র তুলে দেওয়া হবে। ফলে গেরুয়া শিবির ফের কংগ্রেসকে পরিবারবাদের তিরে বিদ্ধ করবে।

এমনিতে এক ব্যক্তি-এক পদ— দলে এই নীতি কার্যকর করা শুরু করে দিয়েছে কংগ্রেস। যে কারণে মধ্যপ্রদেশের বিরোধী দলনেতার পদ ছেড়ে দিয়েছেন প্রবীণ নেতা কমলনাথ। এবার এক ব্যক্তি এক টিকিট নিয়ে চর্চা শুরু হল সাবেক দলে।

অনেকে বলছেন, কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনার সময়ে ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরও এই প্রস্তাব দিয়েছিলেন সাবেক দলকে। আলোচনা ফলপ্রসূ না হলেও পিকের ফর্মুলাকে হয়তো সিলমোহর দিতে চলেছে কংগ্রেস।

তবে পর্যবেক্ষকদের অনেকে বলছেন, ২০০৮-এর কর্নাটক বিধানসভা ভোটেও এই পথে হেঁটেছিল কংগ্রেস। কিন্তু তাতে লাভের লাভ কিছু হয়নি। পর্যবেক্ষকদের অনেকের মতে, পুরনো নীতির জাতীয় আধার দেওয়ার চেষ্টা করছে কংগ্রেস (Congress)।

ছোট্ট এই রেলস্টেশনে যেন সময় থমকে গেছে, কোথায় বলুন তো!

You might also like