Latest News

কংগ্রেস পরিবারতন্ত্রের বাইরে কিছু ভাবতেই পারে না, ফের বিরোধীদের তোপ প্রধানমন্ত্রীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : সোমবারের মতো মঙ্গলবারও সংসদে বিরোধীদের (Opposition) তীব্র আক্রমণে বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। তিনি এদিন রাজ্যসভায় পরিবারতন্ত্রের (Dynasty) কথা তুলে কংগ্রেসের সমালোচনা করেন। তাঁর কথায়, “পরিবারতন্ত্রের প্রথম বলি হয় ট্যালেন্ট।” কংগ্রেস না থাকলে দেশের কী অবস্থা হত, তাও ব্যাখ্যা করেন তিনি।

মোদীর কথায়, “কংগ্রেসের সমস্যা হল তারা কখনও পরিবারতন্ত্রের বাইরে কিছু ভাবতে পারে না। গণতন্ত্রের পক্ষে সবচেয়ে বিপদ হল সেই দলগুলি যারা পরিবারতন্ত্র মেনে চলে। যখন একটা পরিবারই কোনও দলে সর্বেসর্বা হয়ে ওঠে, তখন অপর কারও প্রতিভা বা দক্ষতা গুরুত্ব পায় না।”

পরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “অনেকে বলে কংগ্রেস না থাকলে দেশের কী দশা হত। আসলে তারা ইন্ডিয়া ইজ ইন্দিরা, ইন্দিরা ইজ ইন্ডিয়া স্লোগানে এখনও বিশ্বাস করে।”

মোদী বলেন, “মহাত্মা গান্ধী চেয়েছিলেন, কংগ্রেস দলটি ভেঙে দেওয়া হোক। তিনি জানতেন, কংগ্রেস কোন পথে যাচ্ছে। সেদিন তাঁর কথা শুনে কংগ্রেস ভেঙে দিলে আমাদের দেশ স্বজনপোষণ থেকে রক্ষা পেত। ভারত চলত স্বদেশী পথে। দেশে জরুরি অবস্থা জারি হত না। দশকের পর দশক ধরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতি বাসা বেঁধে থাকত না। শিখরা গণহত্যার শিকার হতেন না। জাতপাত ও আঞ্চলিকতা দূর হত। কাশ্মীর থেকে কাউকে পালিয়ে আসতে হত না। কোনও মহিলাকে তন্দুরে পুড়তে হত না। সাধারণ মানুষকে জীবনধারণের ন্যূনতম সামগ্রীগুলি পাওয়ার জন্য বছরের পর বছর অপেক্ষা করতে হত না।” পরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এরকম অনেক উদাহরণ দেওয়া যায়।

কংগ্রেস অভিযোগ করেছিল, মোদী সরকার যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে ধ্বংস করছে। তার জবাবে মোদী এদিন বলেন, “কংগ্রেস সরকারে থাকাকালীন বহুবার বিভিন্ন রাজ্য সরকারকে ফেলে দিয়েছে। তারা অস্থিতিশীলতা পছন্দ করে”। শেষে তিনি বলেন, কংগ্রেস আরবান নকশালদের ফাঁদে পড়েছে।

You might also like