Latest News

Chandipur: শ্বাসনালী থেকে আস্ত কইমাছ বের করে আনলেন ডাক্তারবাবুরা! চণ্ডীপুরে হুলস্থূল

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মাছ ধরতে গিয়ে নজিরবিহীন ঘটনা। এক ব্যক্তির মুখের ভিতর ঢুকে গেল আস্ত কইমাছ (Koi Fish), আটকে গেল একেবারে শ্বাসনালীতে। চণ্ডীপুরের (Chandipur) কাছে সেই নিয়ে সারাদিন হুলস্থূল। অবশেষে অপারেশনের মাধ্যমে সেই কইমাছ ওই ব্যক্তির গলা থেকে বের করে আনলেন চিকিৎসকরা। এ যাত্রায় প্রাণে বেঁচে গেলেন তিনি।

আরও পড়ুন: ১৬ বছরেই গাঁজার নেশা! ছেলেকে সিধে করতে মুখে লঙ্কাগুঁড়ো ডলে দিলেন মা, দেখুন ভিডিও

ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের ভগবানপুর থানার নছিপুর গ্রামে। সেখানকার বাসিন্দা তাপস মাইতি। মাছ ধরার সময় মুখে একটি কইমাছ ধরে রেখেছিলেন তিনি। কিন্তু মুহূর্তের অসাবধানতাবশত সেই কইমাছটি ঢুকে যায় তাঁর মুখের ভিতর। শ্বাসনালীতে গিয়ে আটকে যায়। শুরু হয় প্রবল রক্তক্ষরণ। শ্বাসকষ্টের প্রাবল্যে তাপসের প্রাণ হয়ে ওঠে ওষ্ঠাগত।

সঙ্গে সঙ্গে বছর চল্লিশের তাপস মাইতিকে ধরাধরি করে নিয়ে যাওয়া হয় চণ্ডীপুর মাল্টি স্পেশালিটি হাসপাতালে। তাঁর চিকিৎসার জন্য সেখানে গঠিত হয় চার সদস্যের একটি মেডিকেল টিম। নেতৃত্বে ছিলেন চণ্ডীপুর হাসপাতালের ইএনটি স্পেশালিস্ট রত্নদীপ ঘোষ। জটিল অস্ত্রোপচার হয় তাপসের গলায়। কেটে যায় ২ ঘণ্টা।

অস্ত্রোপচার সফল। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তাপসের অবস্থা আপাতত স্থিতিশীল। তাঁকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। চিকিৎসকরাও এমন ঘটনা শুনে অবাক হয়ে গিয়েছেন। তাঁরা বলছেন, হাসপাতালে আনতে আর একটু দেরি হলে হয়তো তাপসবাবুকে বাঁচানো যেত না।

You might also like