Latest News

কংগ্রেসকে বাদ দিয়ে বিজেপি বিরোধী জোট নয়, জানালেন শরদ পাওয়ার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : কিছুদিন আগে মারাঠা স্ট্রংম্যান শরদ পাওয়ার বিরোধী নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে ডাক পায়নি কংগ্রেস। যদিও ব্যক্তিগতভাবে ডাকা হয়েছিল প্রবীণ কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বলকে। নানা মহলে জল্পনা শুরু হয়েছিল, কংগ্রেসকে বাদ দিয়েই বিজেপি বিরোধী ফ্রন্ট গড়তে চাইছেন বর্ষীয়ান এনসিপি প্রধান। কিন্তু শুক্রবার জল্পনার অবসান ঘটালেন শরদ স্বয়ং। তিনি বললেন, বিজেপির বিরুদ্ধে যদি কোনও বিকল্প শক্তি গড়ে তুলতে হয়, তাতে কংগ্রেসকে নিতে হবে।

পাওয়ারকে প্রশ্ন করা হয়, কোনও বিকল্প ফ্রন্ট গড়ে উঠলে তিনি কি তার নেতা হবেন? মারাঠা স্ট্রংম্যান বলেন, বিকল্প ফ্রন্ট যৌথ নেতৃত্বের ভিত্তিতে চলবে।

গত ১১ জুন পাওয়ারের সঙ্গে দেখা করেন পোল স্ট্র্যাটেজিস্ট প্রশান্ত কিশোর। পশ্চিমবঙ্গের ভোটে তাঁর পরামর্শ নিয়েছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। তারপরেই শোনা যায়, প্রশান্ত কিশোর এনসিপি প্রধান পাওয়ারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। পর্যবেক্ষকদের ধারণা, ‘মিশন ২০২৪’ নিয়ে আলোচনা করেছেন দু’জনে। অর্থাৎ ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটে কীভাবে সর্বভারতীয় স্তরে বিজেপি বিরোধী জোট গড়ে তোলা যাবে, তা নিয়েই প্রশান্ত কিশোর পাওয়ারকে তাঁর মতামত জানিয়েছেন।

অনেকের ধারণা, তৃণমূলের ‘মিশন ২০২৪’ পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রশান্ত কিশোর ঘন ঘন দেখা করছেন শরদের সঙ্গে। পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা ভোট শেষ হওয়ার পরেও তৃণমূলের হয়েই ব্যাটিং করছেন পোল স্ট্র্যাটেজিস্ট প্রশান্ত কিশোর। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হওয়া কিংবা মুকুল রায়কে দ্রুত পুরানো দলে ফেরানো, সব কিছুর পিছনেই প্রশান্ত কিশোরের পরিকল্পনার ছাপ দেখছেন পর্যবেক্ষকরা।

পর্যবেক্ষকরা মনে করেন, তৃণমূল চায়, ইউপিএ-র চেয়ারম্যানের পদে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীর বদলে আসুন শরদ। তৃণমূল এখন ইউপিএ-র সহযোগী শক্তি ঠিকই কিন্তু তারা ওই জোটে নেই। সর্বভারতীয় স্তরে কংগ্রেসের অবস্থা এখন খুবই খারাপ। দলের কোনও স্থায়ী সভাপতি পর্যন্ত নেই। এই দুর্বল কংগ্রেসকে ইউপিএ-র চেয়ারম্যানের পদটি দেওয়া যুক্তিযুক্ত বলে তৃণমূল মনে করে না। তারা মনে করে, শরদ সভাপতি হলে আগামী লোকসভা ভোটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিকল্প হিসাবে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তুলে ধরতে সুবিধা হবে।

পাওয়ারের বৈঠকে কংগ্রেসকে না ডাকার বিষয়টিকে আমলই দিতে চাননি লোকসভায় কংগ্রেস দলনেতা অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, “প্রশান্ত কিশোর কি ভাগ্যবিধাতা নাকি? তিনি অন্যদের ভাগ্য বিধাতা হতে পারেন। কংগ্রেসের নন।”

You might also like