Latest News

হাওড়ায় ঢুকতে কেন বাধা সুকান্ত-শুভেন্দুকে? পুলিশের অতিসক্রিয়তা নিয়ে মামলা গ্রহণ করল হাইকোর্ট

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হাওড়ায় ঢুকতে দেওয়া হয়নি বঙ্গ বিজেপির দুই নেতাকে। মাঝ পথেই আটকে দেওয়া হয় রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari)। অপরদিকে, শনিবার বঙ্গ বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদারকে (Sukanto Majumder) আটক করে পুলিশ। এই দুই ঘটনায় পুলিশের অতি সক্রিয়তার অভিযোগ তুলে মামলা করার অনুমতি চান কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) এক আইনজীবী। সেই আবেদনই মঞ্জুর করেন বিচারপতি শম্পা সরকার। মামলা করার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছিলেন হাইকোর্টের আইনজীবী আদিত্য মণ্ডল।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে উত্তপ্ত হাওড়ার বিস্তীর্ণ এলাকা (Howrah violence)। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শুক্রবার থেকে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ ছিল হাওড়ায়। উলুবেড়িয়া সহ বেশ কিছু এলাকায় জারি রয়েছে ১৪৪ ধারা। কড়া নিরাপত্তা বলয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে হাওড়ার বেশ কয়েকটি এলাকা। শুক্রবার রাতে বিজেপির কার্যালয়ে হামলা চালায় ক্ষুব্ধ জনতা। শনিবার সেই পার্টি অফিসে যেতে চেয়েছিলেন সুকান্ত। অপরদিকে রবিবার একই কারণে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে টানাপোড়েন চলে।

আরও একটি সিবিআই তদন্তের নির্দেশ, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ মামলায় রায় হাইকোর্টের

হাওড়ার অশান্তি ছড়িয়ে পড়া এলাকায় যাওয়ার জন্য নিউ টাউনের বাড়িতে বেরোতেই পুলিশ আটকায় সুকান্ত মজুমদারকে। কিন্তু পুলিশের বাধা উপেক্ষা করেই গাড়ি করে রওনা দেন হাওড়ার উদ্দেশে। কিন্তু মাঝ পথেই তাঁর গাড়ি আটকে দেয় পুলিশ। তখন পায়ে হেঁটে যাওয়ার চেষ্টা করায় তাঁকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়া হয় লালবাজারে।

রবিবার একইভাবে কাঁথি থেকে হাওড়ায় যেতে চেয়েছিলেন শুভেন্দু। কিন্তু পুলিশ হাওড়ায় যেতে দেয়নি তাঁকেও। নন্দীগ্রামে দীর্ঘক্ষণ পুলিশের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হওয়ার পর শুভেন্দু হাওড়া না গিয়ে কলকাতায় এসে প্রতিবাদ জানান।

অভিযোগ তোলা হয় তাঁদের অন্যায় ভাবে আটকানো হচ্ছে। এমনকি রাজ্যের মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ ত্রিবেদীকেও চিঠি দেন শুভেন্দু। এবার এই দুই ঘটনায় পুলিশের অতি সক্রিয়তার অভিযোগে মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টে।

You might also like