Latest News

রাতের অন্ধকারেই ছেঁটে ফেলা হয়েছে ১২০ বছরের বট গাছের ডাল! পাহারায় গ্রামবাসীরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ১২০ বছরের বেশি বয়েস। দীর্ঘদিন গ্রামের সঙ্গে জড়িত। যেকোন উৎসবে তাকে পুজো করা হয়। কিন্তু হঠাৎই সকালে ঘুম থেকে উঠে গ্রামবাসীরা দেখতে পান যে তাঁদের ‘প্রিয় পবিত্র’ বট গাছটির ডালপালা কারা জেনে ছেঁটে দিয়ে গেছে। আর তারপর থেকেই সজাগ হয়ে আছেন তাঁরা। দিনরাত পাহারা দিচ্ছেন তাঁরা, যাতে গাছটি কেউ বা কারা কেটে ফেলতে না পারে।

ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির আলিপুরের খামপুর গ্রামে। গ্রামের স্থানীয়দের কথায়, গাছটির সঙ্গে তাঁদের আবেগপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে এবং উৎসবের সময় এটিকে পুজো করা হয়। গ্রামবাসীদের কেউ কেউ ঘটনার জন্য স্থানীয় জমি মাফিয়াদের দায়ী করছেন। শুক্রবার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর গ্রামবাসীরা পুলিশের দ্বারস্থ হয়।

এলাকার এক বাসিন্দা অজয় ​​কুমার বলেন, ‘আমার বাবা মারা গিয়েছেন এবং আমরা আচার-অনুষ্ঠানে ব্যস্ত ছিলাম। আমাদের কাজ শেষ হওয়ার পর আমরা জানতে পারি গাছটি ছাঁটাই করা হয়েছে। গাছটির প্রায় পাঁচ থেকে ছয়টি ডাল ছেঁটে ফেলা হয়েছে।’

অজয় আরও দাবি করেন যে, ‘এটা জমি মাফিয়াদের কাজ। যেখানে গাছটি দাঁড়িয়ে আছে সেই জমিতে আবাসিক কলোনি গড়ে তোলা হচ্ছে। আমরা তাদের বলেছিলাম গাছের জন্য কিছু জায়গা ছেড়ে দিতে, না কাটতে।’ এর পেছনে নির্মাণের সঙ্গে জড়িতদের হাত রয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর থেকে গ্রামবাসীরা গাছটি পাহারা দিচ্ছে। এক গ্রামবাসীর কথায়, পুলিশকে জানানো হয়েছে। তারা আইন নিজের হাতে নিতে বারণ করেছে। আর বলেছে গাছের আশেপাশে কোনও কিছু দেখলেই যেন তাদের অবিলম্বে জানানো হয়।

গ্রামবাসীরা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এবং সংশ্লিষ্ট নাগরিক সংস্থার কাছে যাওয়ার পরিকল্পনা করছে। এদিকে বন বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, তারা বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নন। তাঁর কথায়, ‘বিষয়টি আমাদের নজরে আনা হয়নি। এলাকার কোন গাছ কাটার জন্য কাউকে অনুমতি দেওয়া হয়নি। যদি আমরা অভিযোগ পাই, আমরা তা খতিয়ে দেখব।’

You might also like