Latest News

‘নরেন্দ্রর রেকর্ড ভেঙে দেবেন ভূপেন্দ্র’, মোদীর কথাই সত্য হতে পারে গুজরাতে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গুজরাতে (Gujarat) বিধানসভা ভোটের (election) প্রচারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীই (Narendra Modi) ছিলেন দলের একমাত্র মুখ। মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেলকে প্রচারে সেভাবে সামনে আনেনি বিজেপি (BJP)। তবে প্রধানমন্ত্রী বলতে গেলে প্রতিটি সভাতেই বলেন, ‘এবারের ভোটে নরেন্দ্রর রেকর্ড ভেঙে দেবেন ভূপেন্দ্র’।

গুজরাতে বিজেপি ১৯৯৫ সাল থেকে ক্ষমতায়। এরমধ্যে ২০০২ সালের ভোটের ফলই এখনও পর্যন্ত বিজেপির সেরা সাফল্য। গুজরাত দাঙ্গার পর হওয়া সেই ভোটে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বিজেপি ১২৭ আসনে জয় হাসিল করেছিল।

এবারের প্রচারে সেই নরেন্দ্র মোদীই প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন, ‘নরেন্দ্রর রেকর্ড ভেঙে দেবেন ভূপেন্দ্র’। সোমবার গুজরাতে দ্বিতীয় দফার ভোট শেষে একাধিক বুথ ফেরৎ সমীক্ষার হিসাবের গড় করে দেখা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কথা মিলে যেতে পারে।

বুথ ফেরৎ সমীক্ষা অনেক সময়ই হুবহু মেলে না। এক-দু’বার পুরোটাই ভুল প্রমাণিত হয়েছে। কিন্তু গুজরাতের এবারের ভোট নিয়ে বুথ ফেরৎ সমীক্ষার ফল মিলে গেলে বিজেপি রেকর্ড সংখ্যক আসন পেতে পারে। তাদের প্রাপ্ত আসন বেড়ে হতে পারে ১৩১।

২০১৭-র ভোটে বিজেপির ফল সবচেয়ে খারাপ হয়েছিল। প্রাপ্ত আসন একশোর নিচে নেমে যায় সেবার। ১৮২ আসনের গুজরাত বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের জন্য দরকার ৯১টি আসন। বিজেপি গতবার পায় ৯৯টি।

এবার ১৩১টি বা তার কাছাকাছি পেলে কম করে ৩০টি আসন বাড়বে তাদের। বলাই বাহুল্য, এই আসন আসবে কংগ্রেসের ঝুলি থেকে। বিভিন্ন বুথ ফেরৎ সমীক্ষার ফলাফলের গড় করে দেখা যাচ্ছে কংগ্রেসের প্রাপ্ত আসন ৭৭ থেকে কমে ৪১-এ নেমে আসবে।

গুজরাতে বিধানসভার ভোটে সেরা রেজাল্টের রেকর্ড যদিও এখনও কংগ্রেসের হাতেই রয়েছে। মাধব সিং সোলাঙ্কির নেতৃত্বে কংগ্রেস জিতেছিল ১৪৯টি আসন।

হিমাচলে কি অগ্নিপথের প্রভাব? বিজেপির জয় অনিশ্চিত, ক্ষমতায় ফিরতে পারে কংগ্রেস

You might also like