Latest News

দেশে ফের নজির বিহারের, পঞ্চায়েত ভোট হবে ১১ দফায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভোটে হিংসা, অনিয়মে একটা সময় দেশের শীর্ষে ছিল বিহারের নাম। বদনাম ঘুচিয়ে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোটে নীতীশকুমার, লালুপ্রসাদদের রাজ্যই এখন দেশের মডেল। এবার আরও এক নজির গড়তে চলেছে তাঁদের রাজ্য। বাংলার প্রতিবেশী রাজ্যটিতে পঞ্চায়েত নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে ১১ দফায়। দেশের কোথাও, কোনও নির্বাচন এত দফায় করার নজির নেই। ২৪ সেপ্টেন্বর শুরু হয়ে তা চলবে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত। পাঁচ বছর আগে সেখানে পঞ্চায়েত ভোট হয়েছিল দশ দফায়।

শুধু লম্বা ভোট প্রক্রিয়াই নয়, বিহারেই প্রথম পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদের ভোট নেওয়া হবে ইভিএমে। গ্রাম পঞ্চায়েতের ভোট হবে পেপার ব্যালটে। গ্রাম পঞ্চায়েতে বিপুল সংখ্যক প্রার্থীর কথা রেখেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিহার রাজ্য নির্বাচন কমিশন। তাদের অনুমান, তিন স্তর মিলিয়ে প্রার্থী সংখ্যা দাঁড়াবে লাখ দশেক।

১১ দফায় ভোট নেওয়ার সিদ্ধান্তের পিছনে করোনাই একমাত্র কারণ নয়। মূল কারণ, আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখা। তাছাড়া, রাজ্যের ২৮টি জেলা বন্যা কবলিত। সেখানে ভোট নেওয়া হবে বন্যার দুর্যোগ কেটে যাওয়ার পর।

পাঁচ বছর আগের পঞ্চায়েত নির্বাচন হয়েছিল দশ দফায়। উদ্দেশ্য ছিল গ্রামের ভোটকে যতটা সম্ভব অবাধ ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করা যায়। তারপরও বাংলায় পঞ্চায়েত ভোটের দফা নিয়েই শাসক ও বিরোধী দলগুলি একমত হতে পারেনি। ২০১৮-র পঞ্চায়েত ভোটে হিংসা এবং বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় নিয়ে রাজনৈতিক বিবাদ তুঙ্গে ওঠে এ রাজ্যে। ভোট হিংসার বলি হন বহু মানুষ। সেখানে বিহারের ভোট ছিল রক্তপাতহীন।

You might also like