Latest News

জিএসটি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক শুক্রবার, পেট্রল, ডিজেল আসতে পারে তার আওতায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো : লখনউতে জিএসটি কাউন্সিলের (GST Council) ৪৫ তম বৈঠক বসছে শুক্রবার। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের নেতৃত্বে এদিনের বৈঠকে সম্ভবত পেট্রল ও ডিজেলকে পণ্য ও পরিষেবা কর (জিএসটি)-র আওতায় আনার কথা আলোচনা হবে। এছাড়া কোভিডের ওষুধ ও চিকিৎসায় ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জামের ওপরে জিএসটি কমানোর কথাও আলোচনা হতে পারে। এর আগে ২০১৯ সালে জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠক হয়েছিল। তার ২০ মাস পরে ফের বসছে বৈঠক।

অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, পেট্রল ও ডিজেল জিএসটি-র তালিকায় আনলে ক্রেতাদের কি কিছু সুবিধা হবে? শুক্রবারের বৈঠকের আগে জিএসটি কাউন্সিল থেকে বলা হয়েছে, আমরা এখনই পেট্রল, ডিজেলকে পণ্য ও পরিষেবা করের অধীনে আনতে চাই না। কিন্তু রাজ্যগুলিকে বলা হবে, কবে পেট্রলিয়ামজাত পণ্যকে জিএসটির আওতায় আনা যেতে পারে, তা নিয়ে আপনারা একটা সময়সীমা জানান।

২০১৭ সালের জুলাই মাসে জিএসটি চালু হয়। তখন অপরিশোধিত তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস, পেট্রল, ডিজেল ও বিমানের জ্বালানিকে পণ্য ও পরিষেবা করের বাইরে রাখা হয়েছিল। কারণ কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার ওই পাঁচটি পণ্য থেকে বড় অঙ্কের রাজস্ব পেয়ে থাকে।

কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা কমার পরে দেশ জুড়ে বৃদ্ধি পেয়েছে পেট্রল ও ডিজেলের চাহিদা। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে তেলের দাম। অনেকেই দাবি তুলেছেন, পেট্রল ও ডিজেলকে জিএসটি-র আওতায় আনা হোক। তাঁদের ধারণা, এর ফলে তেলের দাম কমবে।

গত বছরের এপ্রিল মাস থেকে জ্বালানির দাম বেড়েছে ৪১ বার। পেট্রল ও ডিজেলের দাম এখন রেকর্ড ছুঁয়েছে। যদিও শুক্রবারের আগের ১১ দিন পেট্রল, ডিজেলের দাম ছিল স্থিতিশীল। দিল্লিতে এখন এক লিটার পেট্রলের দাম ১০১ টাকা ১৯ পয়সা। মুম্বইয়ে এক লিটার পেট্রলের দাম ১০৭ টাকা ২৬ পয়সা। চেন্নাইতে এক লিটার পেট্রলের দাম ৯৮ টাকা ৯৬ পয়সা। কলকাতায় এক লিটার পেট্রলের দাম ১০১ টাকা ৬২ পয়সা।

দিল্লিতে ডিজেলের এক লিটারের দাম ৮৮ টাকা ৬২ পয়সা। মুম্বইতে এক লিটার ডিজেলের দাম ৯৬ টাকা ১৯ পয়সা। চেন্নাইতে এক লিটার ডিজেলের দাম ৯৩ টাকা ২৬ পয়সা। কলকাতায় এক লিটার ডিজেলের দাম ৯১ টাকা ৭১ পয়সা।

তেল উৎপাদনকারী দেশগুলির কার্টেল ওপেক জানিয়েছে, আগামী দিনে তারা তেলের উৎপাদন বাড়াবে। ফলে তেলের দাম কমবে বলে আশা করা যায়।

You might also like