Latest News

Bidisha Death: সাতদিন আগে বাবা-মায়ের ছবি দিয়ে লিখেছিলেন ‘মিস ইউ’, তখন থেকেই ‘প্রস্তুতি’?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বুধবার সন্ধেবেলা নাগেরবাজারের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে উঠতি মডেল বিদিশা দে মজুমদারের ঝুলন্ত দেহ (Bidisha Death)। অভিনেত্রী পল্লবী দে-র মৃত্যুর পরেই একুশ বছর বয়সি এই মডেলের রহস্যমৃত্যু নিয়ে আপাতত টলিউডে তোলপাড় চলছে। এর মধ্যেই প্রশ্ন উঠছে, গত কয়েক দিন ধরেই কি বিদিশা আত্মহত্যার মানসিক ‘প্রস্তুতি’ নিচ্ছিলেন?

‘বিদিশা দে মজুমদার অফিসিয়াল’ (Bidisha Death) এই ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ঘাঁটলে দেখা যাচ্ছে সাত দিন আগে নিজের বাবা-মায়ের ছবি পোস্ট করেছিলেন এই মডেল। ছবিটি দেখলেই বোঝা যাচ্ছে কোনও এক বছর পুজোর সময়ে প্যান্ডেলে তোলা। দুর্গা প্রতিমার সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন বিদিশার বাবা-মা।

তাৎপর্যপূর্ণ হল, বিদিশার ক্যাপশন। বাবা-মার ছবি দিয়ে সাত দিন আগে বিদিশা লিখেছিলেন, ‘মিস ইউ।’ বন্ধুবান্ধব, ঘনিষ্ঠরা অনেকেই মনে করছেন হতাশায় বিপর্যস্ত হয়ে আত্মহত্যার জন্য তিলে তিলে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন এই তরুণী। অনেকেরই কৌতূহল, বিদিশা কী অর্থে ‘মিস ইউ’ লিখেছিলে? তিনি কি মৃত্যুর পর বাবা-মাকে মিস করার কথা লিখতে চেয়েছিলেন?

কয়লাকাণ্ডে এবার সওকত মোল্লাকে ডাকল সিবিআই, আগামীকাল হাজিরার নির্দেশ

বিদিশা নৈহাটির মেয়ে। ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে থাকতেন নাগেরবাজারে। দূরত্ব বেশি নয়। চাইলেই বাড়ি যেতে পারতেন। কিন্তু অনেকে মনে করছেন, মানসিক ভাবে বিদিশা হয়তো এমন জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিলেন তাতে স্বাভাবিক বিষয় থেকে তিনি সরে গিয়েছিলেন অনেকটা দূরে। নিজের মননে অন্য একটা জগত গড়ে নিয়েছিলেন হয়তো। যেখানে হয়তো মৃত্যুই ছিল অমোঘ।

ইতিমধ্যেই বিদিশার সঙ্গে তাঁর জিম ট্রেনার বন্ধু অনুভব বেরার সম্পর্ক জটিলতা আসতে শুরু করেছে। অনুভব মেদিনীপুরের ছেলে। তাঁর প্রতি বিদিশা প্রেমে আচ্ছন্ন ছিলেন বলেও জানা যাচ্ছে ঘনিষ্ঠদের কথায়। যে তরুণী পল্লবীর মৃত্যুর পরে অবাক হয়েছিলেন তাঁরই এমন রহস্যমৃত্যু নাড়া দিয়ে যাচ্ছে অনেককেই। বিদিশার মৃত্যুর পর আরও একবার প্রশ্ন উঠছে, সামান্য সিরিয়াল, মডেলিং করেই তরুণ-তরুণীরা যে বৈভবের জীবনযাপনের অভ্যস্ত হয়ে পড়ছেন তা সামলাতে অনেক সময়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তার মধ্যেই যুক্ত হচ্ছে একাধিক সম্পর্কের সমীকরণ। পরপর দুটো মৃত্যুতে অর্থ, প্রেম, হতাশাই লেখা রইল।

You might also like