Latest News

ফিল্ডারের হেলমেটে বল আটকালে আউট কি? আম্পায়ারদের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র যেন ধাঁধাঁ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্যাভিলিয়ন বা ফিল্ডার বা অন্য কিছুর ছায়া যদি পিচের ওপর পড়ে, আর ব্যাটসম্যান যদি এসে তা নিয়ে আপত্তি জানান, তাহলে আপনি কী সিদ্ধান্ত নেবেন? (BCCI umpires test)

কোনও খেলোয়াড় যদি বল করতে চান, কিন্তু চোটের কারণে তাঁর তর্জনীতে ব্যান্ডেজ লাগানো থাকে, এমন পরিস্থিতি আপনি কী বলবেন বোলারকে?

ব্যাটসম্যান একটি ন্যায্য ডেলিভারিতে ব্যাট চালালেন, সেই বল গিয়ে যদি গিয়ে শর্ট লেগ ফিল্ডারের হেলমেটে লাগে এবং হেলমেট মাথা থেকে খুলে যায়, কিন্তু তার পরেও বলটা আটকে থাকে হেলমেটে তখন আপনার সিদ্ধান্ত কী হবে?

কী ভাবছেন, এমন প্রশ্ন কোন পরীক্ষায় এসেছিল? আপনি যদি এইসব প্রশ্নের উত্তর জানেন তবে আপনিও উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে আম্পায়ারিং করতে পারবেন! অবাক হলেন, সম্প্রতি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের দ্বারা অনুষ্ঠিত আম্পায়ারিংয়ে যোগ্যতা অর্জনের লেভেল দুই পরীক্ষায় এইসব প্রশ্ন এসেছিল।

কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হল এটাই যে, এই পরীক্ষায় ১৪০ জনের মধ্যে মাত্র তিনজন পাশ করেছেন! এবার জেনে নেওয়া যাক কেমন হয় এই পরীক্ষা—

মোট ২০০ নম্বরের পরীক্ষা হয়। তার মধ্যে লিখিত পরীক্ষা ১০০ নম্বর, মৌখিক পরীক্ষা ৩৫, ভিডিও পরীক্ষা ৩৫ ও শারীরিক সক্ষমতা অর্জনের পরীক্ষা ৩০ নম্বরে। দেখা গেছে, অন্যান্য ভাগে পরীক্ষার্থীরা ভাল ফল করলেও বাধা হয়ে দাঁড়ায় লিখিত পরীক্ষা। এমন কিছু প্রশ্ন থাকে যা আপনার গতানুগতিক ধারার বাইরে।

এক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞের কথায়, আম্পায়ারিং খুবই কঠিন কাজ। পুরো ম্যাচ দাঁড়িয়ে থাকে আম্পায়ারদের কিছু সিদ্ধান্তের ওপর। মাঠের মধ্যে দাঁড়িয়ে পরিস্থিতি বিচার করে আম্পায়ারকে সিদ্ধান্ত নিতে হয়। তাঁর তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তই ম্যাচের অনেক বড় মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া তাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে ভাল আম্পায়ার নির্বাচনের জন্য ভারতীয় বোর্ড এই পরীক্ষার আয়োজন করেছিল। পূর্বে, ঘরোয়া ক্রিকেটে বারবার আম্পায়ারিং নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছে। তাই আম্পায়ারদের মান বাড়াতেই এই পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছে। এবং এমনভাবে প্রশ্নপত্র সাজানো হয়েছে যাতে পরীক্ষার্থীরা এখান থেকেই কঠিন পর্বে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

এবার আসা যাক, উপরোক্ত প্রশ্নগুলির উত্তরে।

প্রথম প্রশ্নে যে পরিস্থিতির কথা বলা হয়েছে, সেই ক্ষেত্রে আপনি যদি মাঠে আম্পায়ারের ভূমিকায় থাকেন তবে আপনাকে মাঠের ফিল্ডারকে স্থির থাকতে বলতে হবে। যদি না তেমন হয়, তাহলে আপনি ডেড বল ঘোষণা করবেন। এক্ষেত্রে প্যাভিলিয়ন বা অন্যকিছুর ছায়া পিচের ওপর পড়লে সেটা যেহেতু আপনার কিছু করার নেই তাই সেটাকে উপেক্ষা করতে হবে।

দ্বিতীয় প্রশ্নে যে পরিস্থিতির কথা বলা হয়েছে, সেই ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই বোলারকে তাঁর তর্জনীর ব্যান্ডেজ খুলে ফেলতে বলবেন। যদি বল করতে হয়, তাহলে ওইভাবেই বল করতে হবে।

আর, তৃতীয় প্রশ্নে যে পরিস্থিতির কথা বলা হয়েছে, সেখানে আপনি ‘নট আউট’ সিদ্ধান্ত জানাবেন।

নেতাজির থেকে ‘সাহস’ নিয়েছেন সৌরভ, ‘ওঁর কাজ অনেক কঠিন ছিল’, বলছেন মহারাজ

You might also like