Latest News

ধর্ম সংসদ: যাতির বিরুদ্ধে ফৌজদারি অবমাননা প্রক্রিয়া শুরুর সম্মতি অ্যাটর্নি জেনারেলের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশের সংবিধান (constitition) ও সুপ্রিম কোর্ট (supreme court) সম্পর্কে সাম্প্রতিক ‘অপমানজনক মন্তব্যে’র জন্য ধর্ম সংসদ (dharam sansad) নেতা যাতি নরসিংহানন্দের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অবমাননা প্রক্রিয়া (criminal contempt proceedings) শুরু করার সম্মতি দিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল (এজি) (attoney general) কে কে বেনুগোপাল। জনৈক সমাজকর্মী সাচি নেলি এক সাক্ষাত্কারে যাতির ওই বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য তাঁর বিরুদ্ধে অবমাননা প্রক্রিয়ার সূচনার আবেদন জানিয়ে যে চিঠি দিয়েছেন, তার পরিপ্রেক্ষিতেই সম্মতি দিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল। গত ১৪ জানুয়ারি ট্যুইটারে যাতির ওই সাক্ষাত্কার ভাইরাল  হওয়ার পর চিঠি দেন ওই সমাজকর্মী।

সাক্ষাত্কারে বিতর্কিত ধর্ম সংসদের নেতা যাতি মন্তব্য করেন, যারা দেশের চলতি সিস্টেম, এইসব  রাজনীতিবিদ, সুপ্রিম কোর্ট ও সেনাবাহিনীর ওপর ভরসা করে, তারা সবাই কুকুরের মতো মরবে। এজির অভিমত, এহেন বক্তব্যের মাধ্যমে যাতি  জনমানসে সুপ্রিম কোর্টের গুরুত্ব, মর্যাদা খাটো করার প্রত্যক্ষ চেষ্টা করেছেন।

এদিকে হরিদ্বারের দুই আদালত যাতি ও জিতেন্দ্র নারায়ণ ত্যাগীর জামিনের আবেদন খারিজ করেছে। যাতি ও জিতেন্দ্রকে বিতর্কিত ধর্ম সংসদে মুসলিমদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ভাষণ দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। যাতি দশনা মন্দিরের প্রধান পুরোহিত। ধর্ম সংসদের মূল আয়োজক ছিলেন তিনি। ১৬ জানুয়ারি হরিদ্বারের আদালত তাঁকে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠায়। ১৫ জানুয়ারি তাঁকে গঙ্গার সর্বানন্দ ঘাট থেকে গ্রেফতার করা হয়। দুদিন আগে জিতেন্দ্রকে গ্রেফতারির বিরুদ্ধে সেখানে সত্যাগ্রহে বসেছিলেন তিনি। প্রসঙ্গত, জিতেন্দ্র সম্প্রতি ধর্ম বদলে হিন্দু হয়েছেন। তাঁর আগের নাম ওয়াসিম রিজভি।

হরিদ্বারে ১৭ থেকে ১৯ ডিসেম্বর ধর্ম সংসদ বসেছিল। জিতেন্দ্র ও যাতি সহ ১০ জনের বিরুদ্ধে দুটি এফআইআর দায়ের  করা হয় সেখানে মুসলিমদের বিরুদ্ধে ঘৃণাসূচক ভাষণ ও তাদের  গণহত্যার ডাক দেওয়ার বিরোধিতা করে। মামলার তদন্ত করছে সিট।

 

 

You might also like