Latest News

জনমত সরকারের পক্ষে, পাঁচ রাজ্যে জিতবে বিজেপিই, সাক্ষাৎকারে বললেন মোদী

দ্য ওয়াল ব্যুরো : বৃহস্পতিবার প্রথম দফার ভোট হবে উত্তরপ্রদেশে (Uttarpradesh)। তার আগে বুধবার এক সংবাদ সংস্থাকে সাক্ষাৎকার দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। সাংবাদিক তাঁকে প্রশ্ন করেন, পাঁচ রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ভোটে কী হবে বলে মনে হয়? তিনি বলেন, আমি রাজ্যগুলিতে যেতে পারিনি। নির্বাচন কমিশনের (Election Commission) নিষেধ ছিল। কিন্তু আমি ভার্চুয়ালি সেখানকার মানুষের সঙ্গে কথা বলেছি। আমি দেখেছি, ভোটমুখী প্রতিটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মানুষ বিজেপিকে সমর্থন করছেন। সেখানকার মানুষ তাঁদের সেবা করার জন্য বিজেপিকে সুযোগ দেবেন।

পরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের দলের নীতি হল, সব কা সাথ, সব কা বিকাশ। বিজেপি সবসময় মানুষের ভালর জন্য কাজ করে।”

মোদীর কথায়, “আমরা যেখানে ক্ষমতায় থাকি, সেখানে বড় আকারে সব কা সাথ সব কা বিকাশ নীতিকে কার্যকর করতে পারি।” তাঁর মতে, ভোটমুখী রাজ্যগুলির কোথাও মানুষের মধ্যে সরকারবিরোধী মনোভাব দেখা যায়নি। সেখানে সবাই সরকারের পক্ষে মতপ্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিজেপি যেখানে স্থিতিশীলতার পক্ষে কাজ করার অবকাশ পেয়েছে, সেখানেই মানুষ তাদের সমর্থন করেছেন।”

মোদী উল্লেখ করেন, উত্তরপ্রদেশে বিজেপি ২০১৪, ২০১৭ এবং ২০১৯ সালের লোকসভা ও বিধানসভা ভোটে জিতেছে। একসময় বলা হত, উত্তরপ্রদেশে কোনও দল পরপর দু’বার ক্ষমতায় আসে না। কিন্তু বিজেপির বেলায় ওই নিয়ম কার্যকরী হয়নি। বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়া দেখা যায় না। কিন্তু আপনারা এখনও ওই শব্দটি ব্যবহার করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এর আগে ভোটমুখী রাজ্যগুলিতে যে সরকার ছিল, তারা শুধু ফিতে কাটত আর শিলান্যাস করত। আর কোনও কাজ হত না। কিন্তু বিজেপি সকলের জন্য কাজ করে। তাতে মানুষ ভরসা পায়। গ্রামের একজন যদি সরকারের কাছে কিছু পায়, তাহলে বাকিরা আশা করে, তারাও একদিন কিছু পাবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিজেপি যৌথ নেতৃত্বে বিশ্বাস করে। আমরা যৌথভাবে কাজ করি।” পরে তিনি বলেন, “বিজেপি কর্মী  হিসাবে আমি গর্বিত। যখন অন্যান্য বিজেপি কর্মীর সঙ্গে আমার ছবি ওঠে, আমি নিজেকে অন্যদের সমান মনে করি। নিজেকে কারও থেকে বড় মনে করি না।

You might also like