Latest News

Arup Biswas: মমতার ছবি ফুটবলারদের ঘরে টাঙাতে বললেন মন্ত্রী অরূপ, অনুপ্রেরণা দিতে পেপ টক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সন্তোষ ট্রফিতে অল্পের জন্য চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি বাংলা দল। কেরলের কাছে টাইব্রেকারে হেরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন আরব সাগরে ভাসিয়ে আসতে হয়েছে রঞ্জন ভট্টাচার্যের ছেলেদের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত লড়াই দিয়েছিলেন মনোতোষ চাকলাদার, দিলীপ ওঁরাওরা। শুক্রবার সেই দলকে সংবর্ধনা দিয়েছে ইস্টবেঙ্গল ক্লাব। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস (Arup Biswas) বাংলার ফুটবলারদের পরামর্শ দিয়েছেন কী ভাবে জেদ ধরে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছতে হবে।

প্রাক্তন ফুটবলার প্রশান্ত বন্দ্যোপাধ্যায়, বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্যরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের দেখিয়ে অরূপ (Arup Biswas) বাংলার ফুটবলারদের বলেন, “ওঁদের সময়ে অফার ছিল না, তোমাদের অনেক লোভনীয় অফার আছে।”

এরপরেই অরূপ বলেন, ‘আমরা যারা মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবার থেকে উঠে এসেছি, আমরা সোনার চামচ মুখে নিয়ে আসিনি। আমাদের লক্ষ্য আর জেদটাই বড় করতে হবে। আর সেটা যদি কাউকে দেখে শিখতে হয়, একজনের ছবি বাড়িতে লাগিয়ে রাখবে, তাঁর নাম মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টালির চালে জন্মে জীবনে লড়াই করে, কর্পোরেশন স্কুলে পড়ে আজকে কোন জায়গায় পৌঁছেছেন।’

এখানে থামলে তবু কথা ছিল। এরপর ক্রীড়ামন্ত্রী আরও বলেন, ‘যখন মানুষ ভাবল বেরোতে পারবেন না রাস্তায়। তখন এক পা নিয়ে ২৪০টা মিটিং করে… কোন রাজনৈতিক দলের আমি বলছি না। কিন্তু তাঁর পরিশ্রম, তাঁর জেদ সেটা আমাদের কাছে শিক্ষনীয়, সেটা তোমাদের করতে হবে।’

পাকিস্তান থেকে নিয়ন্ত্রন হয় আইপিএল! বেটিং চক্রের হদিশ পেতে তদন্ত করছে সিবিআই

অরূপ পরে এর আর ব্যাখ্যা দেননি। তবে তাঁর ঘনিষ্ঠরা বলছেন, ফুটবলারদের অনুপ্রেরণা দিতেই মন্ত্রী এমন কথা বলেছেন। এখানে রাজনীতি নেই। ব্যক্তি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জেদ ও নিষ্ঠার কথা বোঝাতে চেয়েছেন তিনি।

তবে অরূপের এই কথার প্রতিক্রিয়ায় সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, ‘ফুটবলাররা যেন একেবারেই ক্রীড়ামন্ত্রীর পরামর্শ না শোনেন। তাহলে সর্বনাশ হবে।” তিনি আরও বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের সব লোক এখন ময়দানে থাবা বসাতে চাইছেন। আইএফএ থেকে ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগান, হকি, বক্সিং—সব জায়গায় ব্যানার্জী বাড়ির লোক ঢুকছে। ময়দানের মমতায়ন করে ফেলতে চাইছে তৃণমূল। তাতেও থামছে না। এখন ফুটবলারদের বাড়ির দেওয়ালেও মাননীয়ার ছবি ঝোলাতে চাইছে। কী নির্লজ্জ এরা!”

You might also like