Latest News

তৃণমূলের মস্তানি পুলিশের ভরসায়, তোপ অর্জুনের, হিম্মত থাকলে মিলিটারি ছাড়া চলুক, পাল্টা পার্থ 

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রবিবার নেতাজি জয়ন্তীতে মুড়িমুড়কির মতো বোমা-গুলি চলেছিল ভাটপাড়ায়।  সোমবার তা গড়াল বাকযুদ্ধে। একদিকে তৃণমূলের বিরুদ্ধে পুলিশ নির্ভরতার অভিযোগ করলেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। পাল্টা অর্জুনের কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা নিয়ে তোপ দাগলেন নৈহাটির বিধায়ক তথা ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি পার্থ ভৌমিক।

এদিন অর্জুন বলেন, “তৃণমূলের যত গুন্ডামি, মস্তানি সব পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে। ক্ষমতা থাকলে তৃণমূলে একা আসুক। পুলিশকে সরিয়ে দিক। তারপর বোঝা যাবে কেমন অদের শক্তি। যাদের মানুষের সমর্থন নেই তাদের পুলিশের ভরসাতেই এসব করতে হয়।”

জবাবে পার্থ ভৌমিক বলেন, “ও তো বাড়ি থেকে বেরোলে পিছনে ২অজন মিলিটারি থাকে। মিলিটারি ছাড়া এক পা বেরোনোর সাহস নেই। ক্ষমতা থাকলে মিলিতারি ছাড়া ঘুরুক দেখি। পারবে না। হিম্মত নেই।”

নেতাজি জয়ন্তীর সকালে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং বনাম ভাটপাড়ার পুরপ্রশাসক গোপাল রাউতের বাহিনীর সম্মুখ সমর চলেছিল ভাটপাড়ার রাস্তায়। তৃণমূলের দাবি, তাদের আগে থেকেই কর্মসূচি ছিল গোপাল রাউত এসে জাতীয় পতাকা তুলবেন এবং নেতাজির মূর্তিতে মালা দেবেন। কিন্তু তৃণমূল পৌঁছনোর আগেই সেখানে পৌঁছে যান অর্জুন। ছিলেন তাঁর ছেলে তথা ভাটপাড়ার বিধায়ক পবন সিংও।

শাসকদলের বক্তব্য, অশান্তি করবে বলেই অর্জুন বাহিনী এই পরিকল্পনা করেছিল। পাল্টা অর্জুন শিবিরের দাবি, নেতাজির উপর দখল কায়েম করতে চাইছে তৃণমূল। এদিন গটা ঘটনা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে জানান অর্জুন। চিঠি লিখেছেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাকেও।

You might also like