Latest News

খুন করা হতে পারে জানতেন আনিস! থানায় জানানোর পরেও মরতে হল তাঁকে, উত্তপ্ত আমতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আমতায় (Amta) আনিস খান (Anis Khan) হত্যাকাণ্ড (Murder) নিয়ে তরজা জারি। রবিবার তাঁর বাড়িতে তদন্তে গিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়তে হল পুলিশকে (Police)। আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র আনিস খানকে কে বা কারা খুন করেছে এখনও তার কিনারা করতে পারেনি পুলিশ। পুলিশের বেশেই ছাদ থেকে ধাক্কা মেরে তাঁকে ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। এখনও কেন কাউকে এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হল না সেই নিয়ে বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে আমতা।

রোগী নিয়ে পুকুরে পড়ে গেল অ্যাম্বুল্যান্স! মুর্শিদাবাদে গভীর রাতে দুর্ঘটনা

রবিবার সকালে আমতায় আনিসের বাড়িতে তদন্ত করতে যান পুলিশ অফিসাররা। কিন্তু পুলিশ দেখেই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন গ্রামবাসীরা। স্থানীয়দের প্রশ্ন, ২৪ ঘণ্টা কেটে গেলেও এখনও দোষীরা গ্রেফতার হল না কেন? কেউ কোনও সাজা পেল না কেন?

আনিসের পরিবারের লোকজন দাবি করেছেন, আগেই প্রাণহানির আশঙ্কায় থানায় গিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন আনিস। কিন্তু তারপরেও পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করেনি।

শনিবার আনিস খান হত্যাকাণ্ড সামনে আসতেই তোলপাড় শুরু হয় চারদিকে। অভিযোগ, পুলিশ সেজে এসে কেউ বা কারা আনিসকে ছাদ থেকে ঠেলে ফেলে দেয়। বাড়ির লোকজনের দাবি, পুলিশ সেজে চারজন ঢুকেছিল। আনিসকে ছাদে নিয়ে গিয়ে ঠেলে ফেলে দেওয়া হয়। কিন্তু পুলিশ বলছে, পুলিশ যায়নি আনিসের বাড়িতে। এখানেই প্রশ্ন উঠছে, তাহলে আনিসকে মারল কে?

বাগনান কলেজের ছাত্র ছিলেন আনিস। সেখানে বামপন্থী ছাত্র আন্দোলন  করতেন। তারপর আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়েও জড়িয়ে পড়েন ছাত্র আন্দোলনে। সিএএ-এনআরসির বিরুদ্ধে আন্দোলনের অন্যতম মুখ ছিলেন এই তরুণ নেতা। কয়েক মাস আগে যোগ দিয়েছিলেন ইন্ডিয়ান সেকুলার ফন্ট তথা আইএসএফেও।

সূত্রের খবর, পুলিশ বেশে চারজন বাড়ি থেকে বেরিয়ে যেতেই উপরে যান আনিসের বাবা-দাদারা। তিন তলার ঘরে গিয়ে দেখেন বিছানায় আনিসের বই ছড়ানো। কিন্তু ছেলেটা নেই। আরও উপরে উঠতে দেখা যায় ছাদের দরজাটা খোলা। ছাদে গিয়ে দেখেন নীচে পড়ে আছে ২৮ বছরের তরুণ। নিথর, তাঁর রক্তেই ভেসে যাচ্ছে চারপাশ।

পুলিশবেশী ওই চারজন কারা? রবিবার সকাল পর্যন্ত তার কোনও কিনারা হয়নি।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like