Latest News

ওমিক্রন সংক্রমণ বাড়ছে, ঝুঁকির মধ্যে থাকা লোকজনকে ভ্যাকসিনের বাড়তি ডোজ? সিদ্ধান্ত আজ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিড ১৯ এর নতুন বিপজ্জনক ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন (omicron) সংক্রমণ সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে দেশে। তার মধ্যেই যাঁরা ঝুঁকির (at risk) মধ্যে রয়েছেন, সংক্রমণের ভয় যাঁদের ক্ষেত্রে বেশি, তাঁদের ভ্যাকসিনের বাড়তি ডোজ (additional dose) দেওয়া হবে কিনা, তা নিয়ে আজই সিদ্ধান্ত নেবে ন্যাশনাল টেকনিকাল অ্যাডভাইসরি গ্রুপ (group)। যেসব  ক্যান্সার (cancer) রোগীর থেরাপি চলছে, যাঁরা এইডস (aids) আক্রান্ত, তাঁরা সহ আরও বেশ কিছু গোষ্ঠীর লোকজনের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অতিরিক্ত ডোজ দেওয়ার ভাবনাচিন্তা চলছে।

সরকারি কর্তাদের মত, ভ্যাকসিনের বাড়তি ডোজ আর বুস্টার ডোজ, দুটো এক ব্যাপার নয়। প্রাথমিক ভ্যাকসিনের টিকা দেওয়ার পর একটা নির্দিষ্ট সময় বাদে তার প্রতিরোধী ক্ষমতা কমে যাবে, সেটা আগে থেকে ঠিক করে নিয়ে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়। কিন্তু অতিরিক্ত ভ্যাকসিনের ডোজ দেওয়া হয় তাঁদের, যাঁদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এমনিতেই  কম, প্রাথমিক ভ্যাকসিনের ডোজ দেওয়া হলেও যাঁরা রোগ ব্যধি থেকে যথেষ্ট সুরক্ষিত নন।

সম্প্রতি সিরাম  ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিজিসিআইয়ের অনুমোদন চেয়েছে যাতে কোভিডের বিরুদ্ধে  বুস্টার ডোজ হিসাবে কোভিশিল্ড প্রয়োগে অনুমতি পাওয়া যায়। ডিজিসিআইকে দেওয়া আবেদনে সরকারি কর্তা তথা এসআইআইয়ের রেগুলেটরি বিষয়সংক্রান্ত অফিসার প্রকাশ  কুমার সিং জানিয়েছেন, ইউকে-এমএইচআরএ ইতিমধ্যেই অ্যাসট্রাজেনেকার কোভিড ১৯ ভ্যাকসিনের বুস্টার ডোজ প্রয়োগে সম্মতি দিয়েছে। ভারতে কোভিশিল্ডের কোনও  ঘাটতি নেই, যাঁরা ইতিমধ্যেই দুটি ডোজ নিয়েছেন, নতুন স্ট্রেন ওমিক্রন ছড়াচ্ছে দেখে তাঁরা বুস্টার ডোজ চাইছেন।

গত ২৯ নভেম্বর ভারতের সার্স-কোভ-২ কনসর্টিয়াম অন জেনোমিক্স (ইনসাকগ) ৪০ এর বেশি বয়সিদের বুস্টার ডোজের সুপারশি করে। তারা অগ্রাধিকার দিতে বসে প্রবল ঝুঁকির  মধ্যে থাকা লোকজন, জনসংখ্যার যে অংশের বেশি সংক্রমিত হওয়ার ভয় আছে, তাদের। যদিও গত শনিবার তারা জানায়, জাতীয় ইমিউনাইজেশন প্রোগ্রামের জন্য তারা ওই সুপারিশ করেনি, কেননা এর প্রভাব খতিয়ে দেখতে আরও অনেক বৈজ্ঞানিক পরীক্ষানিরীক্ষা চালানো প্রয়োজন।

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মান্ডবিয়া লোকসভায়  জানান, এই বিষয়ক বৈজ্ঞানিক তথ্যপ্রমাণ বিচার বিবেচনা করছে ন্যাশনাল টেকনিকাল অ্যাডভাইসরি গ্রুপ অন ইমিউনাইজেশন ও ন্যাশনাল  এক্সপার্ট গ্রুপ অন ভ্যাকসিন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ফর কোভিড ১৯। আপাততঃ বুস্টার ডোজের বিষয়টি অ্যাজেন্ডায় নেই কারণ তার প্রয়োজনীয়তা, কার্যকারিতা নিয়ে কাজকর্ম চলছে।

 

 

 

You might also like