Latest News

বগলের চুল দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রীর! বলিউডে গেল গেল রব, ‘মেরি মর্জি’, সাফ জানালেন তিনি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হাত, পা, নাক, মুখের মতো মাথার চুলও দেহের অঙ্গ। কিন্তু সেই চুল যখন মাথার বাইরে আর কোথাও থাকে, তখন সেটা নিয়ে এত কীসের অস্বস্তি? কেন মেয়েদের শরীরের বাকি অঙ্গপ্রত্যঙ্গের চুলে জড়িয়ে থাকবে লজ্জা? কেন তাকে ঢেকে রাখতে হবে, আর নইলে কামিয়ে ফেলতে হবে একেবারে? সমাজের এই স্টিরিওটাইপ আরও একবার ভাঙলেন বলিউড অভিনেত্রী তিলোত্তমা সোম। বগলের চুল দেখিয়েই পোস্ট করলেন খোলামেলা ছবি।

বৃহস্পতিবার সকালে অভিনেত্রী তিলোত্তমা নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন একটি ছবি। সেই ছবি নিয়ে শোরগোল পড়ে গেছে নেট দুনিয়ায়। বলিউডের অনেকেই তিলোত্তমার এই সাহসী ছবিকে কুর্নিশ জানিয়েছেন।

কী আছে সেই ছবিতে?

ছবিতে দেখা যাচ্ছে গাছগাছালির মাঝে দাঁড়িয়ে আছেন তিলোত্তমা সোম। একরাশ খুশিতে তাঁর চোখ বুজে আছে। দু-হাত উপরদিকে তুলে রাখা আছে মাথার পিছনে। হাতের নীচে বগলের চুল স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে। তাঁর পরনে রয়েছে কালো ট্যাঙ্ক টপ। তাতেও অভিনেত্রীর বার্তা ফুটে আছে স্পষ্টভাবেই। টপের উপর লেখা আছে ‘আন-অ্যাপোলজেটিক’, অর্থাৎ ‘ক্ষমা চাইব না’।

শুধু এই ছবি পোস্ট করেই ক্ষান্ত হননি তিলোত্তমা। সঙ্গে তিনি লিখেছেন, “আমি অনেক সরি বলি। কখনও অন্যের হয়েও সরি বলে দিই, যেন ‘হ্যালো’ বলছি। আমি দুঃখিত, যদি আমি কিছু ভাল করে থাকি, কারণ সেটা আরও ভাল করা যেত। আমার টি-শার্ট বলছে, মুখে সরি বলা কমাতে হবে আর মন থেকে দুঃখিত অনুভব করার মানসিকতা বাড়াতে হবে।”

এরপর নিজের সাহসী পদক্ষেপ নিয়ে আরও একটি বার্তা জুড়ে দিয়েছেন তিলোত্তমা। লিখেছেন, “ওহ, আর আমার বগলের চুল দেখানোর জন্য আমি একেবারেই দুঃখিত নই। আমি যেমন, আমি তেমনভাবেই থাকতে পছন্দ করি। কখনও আমি ওয়াক্স করি, কখনও করি না। ভাল থাকবেন।’

তিলোত্তমার এই পোস্ট সাড়া ফেলে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে সেটি। সাধারণ অনুরাগীরা তো বটেই, ইন্ডাস্ট্রির অনেকেও তাঁর এই পোস্টকে কুর্নিশ জানিয়ে কমেন্ট করেছেন।

তিলোত্তমা প্রথম নন, যিনি বগলের চুল নিয়ে প্রচলিত সামাজিক ট্যাবু ভাঙতে চাইলেন প্রকাশ্যে। এর আগে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অনেক তারকাও এমনটা করেছেন। সেই তালিকায় রয়েছেন ম্যাডোনা থেকে শুরু করে মিলি সিরাস, এমিলি রাতাজকোস্কি প্রমুখ আরও অনেকে।

You might also like