Latest News

মালদহে তৃণমূল কর্মীকে পরপর হাঁসুয়ার কোপ, কাঠগড়ায় কংগ্রেস

দ্য ওয়াল ব্যুরো, মালদহ: তৃণমূল (TMC) কর্মীকে হাঁসুয়ার কোপ মারার অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়াল মালদহে (Maldah)। কাঠগড়ায় সেখানকারই স্থানীয় কংগ্রেস (Congress) কর্মী। বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই তৃণমূল কর্মী। এ ঘটনায় ইতিমধ্যেই এলাকার তিন কংগ্রেস কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরে।

সূত্রের খবর, হরিশচন্দ্রপুরের তৃণমূল কর্মী রামচন্দ্র দাস (৫৫) হরদমনগর জুনিয়র হাইস্কুলে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বেও রয়েছেন। তাঁর সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই জমি সংক্রান্ত বিবাদ চলছিল তাঁরই প্রতিবেশী শঙ্কর দাসের। এদিকে জানা গেছে অভিযুক্ত শঙ্কর দাস এলাকায় কংগ্রেস কর্মী হিসাবেই পরিচিত।

অভিযোগ, মঙ্গলবার আচমকা রামচন্দ্রকে রাস্তায় একা পেয়ে ঘিরে ধরে শঙ্কর ও তাঁর দলবল। এরপরই হাঁসুয়া দিয়ে রামচন্দ্রকে লাগাতার কোপ মারতে থাকে। এমন অতর্কিত আক্রমণের আর্তনাদ করতে করতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন রামচন্দ্রবাবু। তাঁর চিৎকার শুনে সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসেন এলাকাবাসী। স্থানীয়দের তেড়ে আসতে দেখেই পালিয়ে যায় আক্রমণকারীরা। পরে স্থানীয়রাই সেই তৃণমূল কর্মীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

ঘটনা প্রসঙ্গে হরিশচন্দ্রপুর ২ নম্বর ব্লকের তৃণমূল সভাপতি তবারক হোসেন চৌধুরী বলেন, “রামচন্দ্র আমাদের দলের সক্রিয় কর্মী। শুনেছি কংগ্রেস আশ্রিতরাই তাঁকে হাঁসুয়া মেরেছে। পুলিশ পুলিশের কাজ করবে। আইন আইনের পথে চলবে। তৃণমূল এসব অন্যায় বরদাস্ত করবে না। আমাদের দলের লোককে কেউ অন্যায়ভাবে মারলে আমরা তা মেনে নেব না।”

এদিকে এই ঘটনার পরেই অভিযুক্তদের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন আক্রান্ত তৃণমূল কর্মী রামচন্দ্র দাসের ছেলে সৌভিক দাস। অভিযোগ পাওয়ার পরই তিনজনকে গ্ৰেফতার করেছে পুলিশ।

সিঁথিতে ছেলের হাতে বাবা খুন! ‘অপরাধ’ নেশার টাকা দেননি

You might also like