Latest News

মদ খাইয়ে দাদার গলা কাটল দুই সৎ ভাই, বারুইপুরে গ্রেফতার ৪

দ্য ওয়াল ব্যুরো, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: বড় রাস্তার ধার থেকে উদ্ধার হল এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির গলাকাটা (murder) মৃতদেহ। বুধবার সকালে সেই মৃতদেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। দেখামাত্রই সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশে। এরপর ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে সেই মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে জয়নগর ২ নম্বর ব্লকের অন্তর্গত বকুলতলা থানা এলাকায়।

এদিকে মৃতদেহ উদ্ধারের খবর এলাকায় জানাজানি হতেই জোর আতঙ্ক ছড়ায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করে পুলিশ। জানা গেছে, মৃত ব্যক্তির নাম হোসেন মল্লিক (৩০)। বাড়ি বারুইপুর (Baruipur) থানা এলাকার বড় দূর্গা গ্রামে। কী কারণে ওই ব্যক্তি খুন হলেন, তা নিয়ে পুলিশ মহলে ধোঁয়াশা তৈরি হয়।

এরপরেই ওই ব্যক্তির বাড়ি চলে যান তদন্তকারীরা। তাঁর পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। এই সময়েই হোসেনের স্ত্রী ও সৎ মায়ের বক্তব্যে বেশ কিছু অসঙ্গতি ধরা পড়ে বলে অভিযোগ। এরপরই গ্রেফতার করা হয় তাঁদের। তার পরে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় মৃতের দুই সৎ ভাই (step brothers) সাবির গাজী ও আবির গাজী।

তাঁদের জেরা করতেই খুনের বিষয়ে একাধিক তথ্য উঠে আসে। পুলিশ জানতে পারে, খুনের আগে হোসেন মল্লিককে দীর্ঘক্ষণ ধরে মদ খাওয়ায় দুই সৎ ভাই। এরপর চরম নেশায় যখন হোসেন বেসামাল হয়ে পড়ে, তখনই তাঁর গলা কেটে রাস্তার ধারে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় ওই দু’জন। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, পারিবারিক অশান্তির জেরেই এই খুন।

চারজনকে গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার বারুইপুর এসপি অফিসে আনা হয়। সেখানেই এসপি সাংবাদিক সম্মেলন করে গোটা ঘটনার বিষয়ে একাধিক তথ্য সংবাদমাধ্যমের হাতে তুলে দেন। এরপর চার জনকেই বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয়। জানা গেছে, সেখানে বিচারক দুই ভাইয়ের ১০ দিনের পুলিশ হেফাজত, স্ত্রী ও সৎ মায়ের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

লটারিতে দামি গাড়ি জেতার লোভ দেখিয়ে প্রতারণা! গ্রেফতার ক্যারাটে প্রশিক্ষক

You might also like