Latest News

বিবাহবিচ্ছেদের জন্য স্বামী-স্ত্রীর ১ বছর আলাদা থাকা বাধ্যতামূলক নয়: কেরল উচ্চ আদালত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিচ্ছেদ চাইলেই বিচ্ছেদ (divorce) নয়। পারস্পরিক সম্মতিতে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করতে গেলেও অন্ততপক্ষে এক বছর আলাদা থাকতে হবে স্বামী-স্ত্রীকে। খ্রিস্টানদের (Christian) বিবাহবিচ্ছেদ আইনের সেই নিয়ম সম্প্রতি খারিজ করল কেরল উচ্চ আদালত (Kerala High Court)।

১৮৬৯ সালের খ্রিষ্টান বিবাহবিচ্ছেদ আইনের একটি ধারা অনুযায়ী, পারস্পরিক সম্মতিতে বিয়ে ভাঙতে চেয়ে আবেদন করতে চাইলে তার আগে অন্ততপক্ষে এক বছর আলাদা থাকতেই হবে স্বামী-স্ত্রীকে। একই আইন অনুযায়ী ২০১০ সালের আগে পর্যন্ত বিচ্ছেদের আবেদন করার আগে পর্যন্ত কমপক্ষে দু’বছর পরস্পরের থেকে আলাদা থাকার বিধান ছিল স্বামী-স্ত্রীর। যদিও ২০১০ সালে একটি মামলার প্রেক্ষিতে তা কমিয়ে ১ বছর করেছিল কেরল উচ্চ আদালত। সেই আদালতই এবার জানাল, খ্রীষ্ট ধর্মাবলম্বীদের বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে ন্যূনতম এক বছরও আলাদা থাকার কোনও প্রয়োজন নেই।

আদালতের এই বক্তব্য খ্রীস্টান বিচ্ছেদ আইনকে অন্যান্য বিবাহ এবং বিচ্ছেদ নিয়ন্ত্রক আইন, যেমন স্পেশাল ম্যারেজ অ্যাক্ট এবং হিন্দু বিবাহ আইনের সমতুল্য জায়গায় নিয়ে এল। এই আইনগুলির ক্ষেত্রে পারস্পরিক সম্মতিতে বিবাহ বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে ন্যূনতম এক বছর আলাদা থাকার বাধ্যতামূলক নয়। খ্রীষ্ট ধর্মাবলম্বীদের ক্ষেত্রেও এক বছর বাধ্যতামূলকভাবে আলাদা থাকার নিয়ম তুলে দিয়ে বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে অন্যান্য আইনের সঙ্গে সমতা রক্ষা করল কেরল উচ্চ আদালত।

মদ্যপান করে খাবারের মান নিয়ে অশান্তি বরের! মালাবদলের পরেও বিয়ে ভাঙলেন কনে

You might also like