Latest News

৫ বছরের মেয়েকে অপহরণ করে খুন, দেহ ছ’টুকরো করে ভাসানো হল সমুদ্রে! বাংলাদেশে নৃশংস কাণ্ড

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মাস কয়েক আগে ৫ বছরের ছোট্ট বাচ্চাকে অপহরণ করেছিল এক যুবক। তার পরিকল্পনা ছিল, ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় করবে বাচ্চাটির পরিবারের কাছ থেকে। ৬-৭ লক্ষ টাকা পেলেই তার হয়ে যেত। কিন্তু অপহরণের পরে হল মহা বিপদ। মোবাইল ফোনটি খারাপ হয়ে গেল অপহরণকারী যুবকের। বাচ্চাটির বাড়ির সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারল না সে। এদিকে এতদিন ধরে বাচ্চাটিকে লুকিয়ে রাখাও সমস্যার হয়ে উঠছে। শেষমেশ রেগেমেগে তাকে খুনই করে বসল সে! তার পরে ছোট্ট দেহ ছ’টুকরো করে (5 yrs Child Killed and Chopped) কেটে ভাসিয়ে দিল সমুদ্রে!

নৃশংস এই কাণ্ড ঘটেছে বাংলাদেশের চট্টগ্রামে। মূল অভিযুক্ত আবির মিঞাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জেরার মুখে খুনের কথা সে স্বীকারও করেছে। আজ, মঙ্গলবার অভিযুক্ত আবিরের বাবা, মা এবং বোনকেও হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

বাংলাদেশের তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন বা পিবিআই জানিয়েছে, গত ১৫ নভেম্বর আলিনাকে তার বাড়ির সামনে থেকে তুলে আনা হয়। কয়েকদিন পরে তাকে গলা টিপে খুন করা হয়। তার পরে প্রমাণ লোপাটের জন্য আলিনার দেহ ৬ টুকরোতে ভাগ করে আবির, ভাসিয়ে দেয় সমুদ্রে। ২৫ নভেম্বর তাকে গ্রেফতার করা হয়। দেহাংশের খোঁজে এখনও চলছে তল্লাশি।

চট্টগ্রামে হালিশহর এলাকায় আলিনাদের বাড়ির একতলায় দীর্ঘদিন ধরেই ভাড়া থাকতেন আজহারুল ইসলাম ও তাঁর পরিবার। আজহারুলেরই ছেলে আবির। তাকে ‘চাচ্চু’ বলে ডাকত ছোট্ট আলিনা। সেই চাচ্চুই যে একরত্তি মেয়ের সঙ্গে এমন নৃশংস কাণ্ড ঘটিয়েছে, তা যেন বিশ্বাস করতে পারছেন না আলিনার মা-বাবা, তামান্না ইসলাম এবং সোহেল রানা। 

পর্ন দেখেই বিকৃত মানসিকতা! দশ বছরের বাচ্চাকে ধর্ষণ করে ঝুলিয়ে দিল নাবালক

You might also like