Latest News

দৈনিক কোভিড সংক্রমণ ২ লক্ষের বেশি, বাড়ল পজিটিভিটি রেটও

দ্য ওয়াল ব্যুরো : রবিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক (Central Health Ministry) জানাল, তার আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশে কোভিডে আক্রান্ত (Covid Infected) হয়েছেন ২ লক্ষ ৩৪ হাজার জন। অতিমহামারী (Pandemic) শুরু হওয়ার পরে এই নিয়ে ভারতে আক্রান্ত হলেন ৪ কোটি ১০ লক্ষ মানুষ। অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা মোট আক্রান্তের ৪.৫৯ শতাংশ। শনিবার পজিটিভিটি রেট ছিল ১৩.৩৯ শতাংশ। রবিবার তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪.৫০ শতাংশ। সাপ্তাহিক পজিটিভিটি রেট ১৬.৪০ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ৮৯৩ জন কোভিড রোগী।

এখনও পর্যন্ত দেশে কোভিড ভ্যাকসিনের ১৬৫ কোটি ৭০ লক্ষ ডোজ দেওয়া হয়েছে। দেশের প্রাপ্তবয়স্কদের ৭৫ শতাংশ ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ পেয়েছেন। অতিমহামারী শুরু হওয়ার পরে সবচেয়ে বেশি কোভিড সংক্রমণ হয়েছে মহারাষ্ট্রে। শনিবার সেখানে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ২৭ হাজার ৯৭১ জন। তাঁদের মধ্যে ৮৫ জনের শরীরে মিলেছে ওমিক্রন ভ্যারিয়ান্ট। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ৬১ জন কোভিড রোগী।

সামগ্রিকভাবে মহারাষ্ট্রে তৃতীয় ওয়েভের তীব্রতা কমে আসছে। কিন্তু কয়েকটি শহরে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে এখনও। দিল্লিতে শনিবার কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪৮৩ জন। মারা গিয়েছেন ২৮ জন। পজিটিভিটি রেট ৭.৪১ শতাংশ। শনিবার কেরলে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৫১ হাজার ৮১২ জন। মারা গিয়েছেন আটজন। গত ২৪ ঘণ্টায় কেরলে ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৮৯৮ জনের কোভিড পরীক্ষা করা হয়েছে।

শুক্রবার কর্নাটকে কোভিডে মারা গিয়েছিলেন ৫০ জন। শনিবার মারা গিয়েছেন ৭০ জন। এদিন রাজ্যে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩ হাজার ৩৩৭ জন।

মিজোরাম বাদে উত্তর-পূর্ব ভারতের সর্বত্র কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে। ওই রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ২১৪৩ জন। সেখানে এখন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১৪ হাজার ৬০৮। গত ২৪ ঘণ্টায় মিজোরামে মারা গিয়েছেন চারজন।

২০২০ সালের ১৯ ডিসেম্বর ভারতে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ায় এক কোটি। ২০২১ সালের ৪ মে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ায় ২ কোটি। ২৩ জুন আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ায় ৩ কোটি। সারা বিশ্বে এখন দৈনিক গড়ে ২০ লক্ষ মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছেন। আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হতে সময় লাগছে ১০ দিন।

You might also like