Latest News

১০৪ বছর বয়সে লিখতে শিখলেন কুট্টিয়াম্মা, সাক্ষরতা পরীক্ষায় পেলেন ৮৯% নম্বর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বয়স নাকি সংখ্যামাত্র। ইচ্ছেশক্তি আর মনের জোর থাকলে সবই সম্ভব। এ কথা সকলে জানলেও, বাস্তবে অনেকসময়ই তা সম্ভব হয় না। বয়সের কারণে অনেকেরই অনেক শখ পূরণ হয় না, অনেক স্বপ্নই অধরা থেকে যায়। কিন্তু কেরালার কোট্টায়াম (Kottayam) জেলার কুট্টিয়াম্মা (Kuttiyamma) প্রমাণ করেছেন, বয়স সত্যিই সংখ্যামাত্র। তাই তো এই বৃদ্ধ বয়সে কেরালা রাজ্য সাক্ষরতা মিশন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন তিনি। বয়স শুনে চমকে উঠছেন সকলেই। ১০৪ (104 years)।

এতটা বয়স অবধি বেঁচে থাকাই একটা আশ্চর্যের বিষয়। বেঁচে থাকলেও এই বয়সে বার্ধক্যের ভারে নুইয়ে যান বেশির ভাগ মানুষই। হয়তো শয্যাশায়ী থাকেন, মৃত্যুর দিন গোনেন। কিন্তু কুট্টিয়াম্মা যেন এসবের ঊর্ধ্বে। তিনি জীবনের নতুন অধ্যায় শুরুই করলেন এই বয়সে এসে।

স্বামী-মেয়ে নেই, আত্মীয়স্বজনরা খোঁজ নেয় না, রিক্সাচালককে কোটি টাকার সম্পত্তি দান বৃদ্ধার

১০৪ বছর বয়সি কুট্টিয়াম্মা স্কুলের গণ্ডিই পার করেননি ছোটবেলায়। তবে তিনি পড়তে জানতেন। লিখতে পারতেন না। কিন্তু লেখা-পড়ার কোনও বয়স হয় না। লিখতে শেখারও বয়স হয় না, তাই সাক্ষরতা পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে গিয়েই প্রথম কাগজ-কলমের সঙ্গে পরিচয় করেন তিনি। ধীরে ধীরে শেখেন লিখতে। কুট্টিয়াম্মার বাড়িতে সকাল ও সন্ধ্যার শিফটে ক্লাস হতো। শতবর্ষী এই বৃদ্ধাকে উৎসাহও দিয়েছেন সকলে।

আর তারই ফলাফল হাতেনাতে। সম্প্রতি কোট্টায়ামের আয়রাকুন্নান পঞ্চায়েতের তরফে সাক্ষরতা পরীক্ষা (Kerala State Literacy Mission) পরিচালনা করা হয়। সেই পরীক্ষাতেই বসেন তিনি। তাতে তিনি শুধু যে পাশই করেছেন তাই নয়, রেকর্ড নম্বরও পেয়েছেন! ১০০-র মধ্যে ৮৯!

কেরালার শিক্ষামন্ত্রী ভি শিবাকুট্টি নিজে কুট্টিয়াম্মাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি টুইট করে লেখেন, ‘কোট্টায়ামের ১০৪ বছর বয়সী কুট্টিয়াম্মা কেরালা রাজ্য সাক্ষরতা মিশন পরীক্ষায় ১০০-এর মধ্যে ৮৯ নম্বর পেয়েছেন। কুট্টিয়াম্মা দেখিয়েছেন লেখা-পড়ার কোনো বয়স হয় না। শ্রদ্ধা এবং আন্তরিক ভালবাসার সঙ্গে আমি তাঁকে এবং অন্যান্য নতুন শিক্ষার্থীদের শুভকামনা জানাই।’ এই শুভেচ্ছা বার্তার পাশাপাশি তিনি কুট্টিয়াম্মার একটি ছবিও টুইট করেছেন।

সারা দেশের মধ্যে সাক্ষরতার হার সবচেয়ে বেশি এই কেরলেই। কেরল রাজ্য সাক্ষরতা মিশন অথরিটি রাজ্যের সকল নাগরিকের জন্য সাক্ষরতা, শিক্ষার প্রচার করে এই গৌরব এনেছে রাজ্যে। সেই গৌরবের মুকুটেই যেন নতুন পালক কুট্টিয়াম্মার কৃতিত্ব।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like