বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮

রাশিয়ার চিড়িয়াখানায় জোড়ায় হাজির সাদা সিংহ ছানা, দস্যিপনায় নেট দুনিয়া মাতাচ্ছে তারা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দুধ সাদা গায়ের রং। উজ্জ্বল দু’খানা চোখ। কালচে রংয়ের নাক। রাশিয়ার এক চিড়িয়াখানায় দর্শন মিললো বিরল প্রজাতির সাদা সিংহের। তবে পূর্ণ বয়স্ক নয়। ছোট্ট ছানা। সবে একটু হাঁটতে-দৌড়তে শিখেছে। তবে একা নয়, রয়েছে জোড়ায়।

সিংহ ছানাদের সামলাতে গিয়ে নাজেহাল চিড়িয়াখানার কর্মীরা। হাতে-পায়ে বড্ড শান্ত আরকি। একটু চোখ সরালেই হয়েছে। একজন তো সারা খাঁচা জুড়ে দৌড়ে বেড়াচ্ছে। কখনও লাফিয়ে উঠে পড়ছে দেখভাল করার কর্মীর কোলে। তারপর সেই কর্মীর গাল চেটে, নাকে-নাক ঘষে একেবারে সাংঘাতিক আদর পর্বও হয়ে যাচ্ছে। ফাঁক বুঝে ঘাড়ে চড়াও হয়ে যাচ্ছে মাঝে মাঝে। আরেকজন অবশ্য তুলনায় একটু শান্ত। সঙ্গীর সঙ্গে খেলাতেই সে ব্যস্ত। মাঝে মাঝে জুলজুল করে একটু এদিক-ওদিক দেখে নিচ্ছে। দু-একবার রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা কর্মীর কোলেও চড়ে বসেছে। ট্রেনার জানিয়েছেন, এই শান্ত সিংহটি একটু বেশিই মানুষের সঙ্গ পছন্দ করে। সারাদিন খেলাধুলো আর মাঝে মাঝে চুপ করে কোলে চড়ে আরাম নেওয়াই ওর স্বভাব।

লাফালাফি-খেলাধুলো শেষে পর এ বার খানিক জিরিয়ে নেওয়ার পালা। তারপর তো খাওয়াদাওয়াও করতে হবে। ফিডিং বোতলের দুধটুকু সবটাই বাধ্য ছানাদের মতো শেষ করে ফেলল দুই সাদা সিংহ শাবক। ট্রেনার জানালেন, ওদের ইমিউনিটি পাওয়ার একটু কম। তাই খুব যত্ন-আত্তি করতে হচ্ছে। খেয়াল রাখার পাশাপাশি নিয়ম করে সময়ে সময়ে খাবার খাওয়ানোও হচ্ছে। সে কী কম ঝক্কি! প্রতি দু’ঘণ্টায় আসছে মাংস আর ছাগলের দুধ। তবে ট্রেনারকে খাওয়ার সময় বিশেষ জ্বালাতন করে না এই দুই সিংহ ছানা। চুপচাপই শেষ করে নেয় নিজেদের ভাগের খাবার।

পরিসংখ্যান বলছে, বিশ্বে মাত্র ৩০০টি এমন বিরল প্রজাতির সাদা সিংহ রয়েছে। যাদের মধ্যে কেবল ১০০টি সাদা সিংহ থাকে আফ্রিকার বিভিন্ন সংরক্ষণ এলাকায়। বাকিরা ছড়িয়ে রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রাশিয়ার চিড়িয়াখানার এই দুই সিংহ ছানার ছবি ভাইরাল হতেই তাদের জন্য আদর আর ভালোবাসা দিয়েছেন নেটিজেনরা। ওরা যেন সুস্থ ভাবে বেঁচে থাকে এটাই প্রার্থনা করছেন সকলে।

দেখুন সিংহ শাবকদের দস্যিপনার সেই ভিডিয়ো।

Comments are closed.