বুধবার, অক্টোবর ১৬

জেলেই আত্মহত্যা নাবালিকা মেয়েদের পাচার করে সেক্স র‍্যাকেট চালানোয় অভিযুক্ত মার্কিন ধনকুবেরের

দ্য ওয়াল ব্যুরো : নাবালিকা মেয়েদের পাচার করে এনে যৌন সম্পর্ক ও সেক্স র‍্যাকেট চালানোর দায়ে জেল হেফাজতে ছিলেন আমেরিকার বিলিয়নেয়ার ব্যবসায়ী জেফরি এপস্টেইন। সাজা ঘোষণার জেলেই গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করলেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটে শনিবার সকাল সাড়ে ৭টা নাগাদ। নিউ ইয়র্কের মেট্রোপলিটন কারেকশনাল সেন্টারে তাঁর সেলে সকালে উদ্ধার হয় দেহ। সেখানেই গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন এই ধনকুবের। জুলাই মাসে জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ার পরেও একবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। সে বার বেঁচে যান। গলায় সামান্য ক্ষত নিয়ে তাঁকে উদ্ধার করেন জেলের নিরাপত্তারক্ষীরা। কিন্তু এ বার আর তা হলো না।

নিউ ইয়র্ক পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার গভীর রাতে সবার আড়ালে গলায় দড়ি দেন এপস্টেইন। সেই সময় তাঁর সেলের কাছে কোনও নিরাপত্তারক্ষী না থাকায় কেউ দেখতে পাননি। কিন্তু জেলের ভিতরে কীভাবে তিনি দড়ি জোগার করলেন, সে ব্যাপারেই অবাক হচ্ছে পুলিশ। এই ব্যাপারে জেলের মধ্যেই কেউ তাঁকে সাহায্য করেছিল কিনা, সে বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, অনেক নাবালিকা মেয়েকে পাচার করে এনেছিলেন এপস্টেইন। তাদের সঙ্গে জোর করে যৌন সম্পর্ক করতেন ৬৬ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী। কিন্তু এ বছরের শুরুতেই সেই কথা জানাজানি হয়ে যায়। তারপরেই পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা করা হয়।

আদালতে দাঁড়িয়ে অবশ্য নিজেকে নির্দোষ বলেই দাবি করেন এপস্টেইন। আদালত জানায়, তিনি দোষী প্রমাণিত হলে ৪৫ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে তাঁর। পুলিশ জানিয়েছে, তদন্তের গতিপ্রকৃতি যেদিকে যাচ্ছিল, তাতে কিছুদিনের মধ্যেই দোষী প্রমাণিত হতেন তিনি। আর তাই তার আগেই আত্মহত্যা করলেন এপস্টেইন। .

Comments are closed.