বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

পাকিস্তানে বন্ধ ভারতীয় বিজ্ঞাপন, বলিউড ছবির সিডি বাজেয়াপ্ত করছে ইসলামাবাদ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কাশ্মীরের উপর থেকে স্পেশ্যাল স্ট্যাটাস তুলে নেওয়ার পর থেকেই ক্ষুব্ধ হয়ে রয়েছে পাকিস্তান। প্রথমেই ভারতীয় ছবি, থিয়েটার প্রদর্শনী বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পাক তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। এ বার ভারতের কোনও বিজ্ঞাপনও সেখানে দেখানো যাবে না, এমনটাই ঘোষণা করল তারা। এমনকী দেশজুড়ে বিভিন্ন সিডির দোকানে হানা দিয়ে বাজেয়াপ্ত করা হচ্ছে ভারতীয় ছবি ও গানের সিডি।

পাক তথ্য ও সম্প্রচার মন্তকের তরফে ফিরদৌস আশিক আওয়ান সাংবাদিকদের জানান, “আমরা ভারতের সব বিজ্ঞাপন বন্ধ করে দিয়েছি। দেশজুড়ে বিভিন্ন সিডির দোকানে হানা দিয়ে ভারতীয় ছবি ও গানের সিডি বাজেয়াপ্ত করা হচ্ছে।” আওয়ান আরও জানান, “আজকেই ইসলামাবাদের বেশ কিছু সিডির দোকানে হানা দিয়ে অনেক সিডি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।”

জানা গিয়েছে, শুধুমাত্র ভারতে তৈরি বিজ্ঞাপন নয়, অন্য দেশের কোনও বিজ্ঞাপনেও যদি ভারতীয় কোনও অভিনেতা-অভিনেত্রী থাকেন, বা ভারতীয়রা কোনও ভাবে যুক্ত থাকেন, তাহলে সেই বিজ্ঞাপনকেও বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পাকিস্তান ইলেকট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি ( পেমরা ) ইতিমধ্যেই টেলিভিশনে ভারতে তৈরি জিনিসের বিজ্ঞাপন বন্ধ করে দিয়েছে। শুধু টিভিতে নয়, জানানো হয়েছে, রেডিওতেও কোনও বিজ্ঞাপন দেখানো হবে না। সমস্ত টিভি ও রেডিও চ্যানেলকে এই ব্যাপারে বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়েছে। যদি কোনও ভাবে এই বিজ্ঞপ্তি না মানা হয়, তাহলে ব্যবস্থা নেওয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছে পেমরা।

এর আগেই অবশ্য পাকিস্তানে ভারতীয় ছবির প্রদর্শন বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে দেশের বেশিরভাগ শহরে তা কার্যকরও হয়েছে। এমনকী ভারতীয় শিল্পীদেরও পাকিস্তানে ঢোকার ক্ষেত্রে যে সহজে অনুমতি দেওয়া হবে না, তা জানিয়ে দিয়েছে পাক বিদেশমন্ত্রক।

অবশ্য পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্তের পর সেখানকারই কিছু অর্থনীতিবীদ জানিয়েছেন, এই সিদ্ধান্তে আখেরে ক্ষতি পাকিস্তানেরই। কারণ, ভারতের বিনোদন জগতের উপর পাকিস্তানের ইকোনমি অনেকটাই নির্ভর করে। ফলে এই ধরণের হঠকারী সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সরকারের ভালো করে সবকিছু ভেবে নেওয়া উচিত বলেই জানিয়েছেন তাঁরা।

Comments are closed.