শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১

স্বাধীনতা দিবসে লন্ডনের মাটিতে কাশ্মীর বিক্ষোভ, ভারতীয় দূতাবাসের সামনে হাজার হাজার মানুষ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কাশ্মীর নিয়ে ভারতের প্রতিবাদ আর শুধু পাকিস্তান নয়, ছড়িয়ে পড়ল সুদূর ব্রিটেনেও। ভারতের ৭৩ তম স্বাধীনতা দিবসের দিন প্রতিবাদ দেখালেন হাজার হাজার মানুষ। তাও আবার ভারতীয় দূতাবাসের বাইরে। এই প্রতিবাদে ভারত-বিরোধী এমনকী মোদী-বিরোধী স্লোগানও দেখা গিয়েছে।

ব্রিটেনে তখন ভারতীয় দূতাবাসে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন শুরু হয়েছে। এসে পৌঁছেছেন প্রায় ৫০০ বিশিষ্ট অতিথি। হঠাৎ করেই দূতাবাসের বাইরে লোক জড়ো হতে থাকা। বেশ কিছুটা দূরে তাঁদেরকে আটকে দেয় পুলিশ। কিন্তু ধীরে ধীরে এই সংখ্যাটা বাড়তেই থাকে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। দূতাবাসের মধ্যে থাকা অতিথি ও কর্মীদের নিরাপত্তার আশঙ্কা দেখা দেয়। তারপরেই চারজনকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানা গিয়েছে।

স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের তরফে জানানো হয়েছে, ওই জমায়েতে বেশ কিছু মানুষ পোস্টার নিয়ে এসেছিলেন। কোনওটাই লেখা, “কাশ্মীর পুড়ছে।” কোথাও লেখা, “কাশ্মীরকে স্বাধীন করো।” কিছু পোস্টারে তো মোদী বিরোধী স্লোগানও লেখা ছিল, যেমন “মোদী, চা তৈরি করুন, যুদ্ধ নয়।” এই বিক্ষোভকারীদের মধ্যে কারও কাছ ধারালো অস্ত্র ছিল বলেও জানিয়েছে তারা। সেই অস্ত্র বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে যেতেও দেখা গিয়েছে পুলিশকে। এই বিক্ষোভের মধ্যে পড়ে একজন আহত হয়েছেন বলেও খবর।

জানা গিয়েছে, অনেকেই চার্টার্ড বাস ভাড়া করে এই বক্ষোভ দেখাতে এসেছিলেন। স্থানীয় এক সূত্র দাবি করেছে, গ্রেট ব্রিটেনের যে সব জায়গায় মুসলিম অধিবাসীর সংখ্যা বেশি, সেইসব জায়গা থেকেই এই বিক্ষোভকারীরা এসেছিলেন। বিক্ষোভ দেখাতে আসা কাশ্মীরি বংশোদ্ভূত আমিন তাহির জানান, “আমরা কাশ্মীরের ভাইদের প্রতি আমাদের সমর্থন দেখাতে এসেছি। ১৯৪৭ সাল থেকে ভারতের কাছ থেকে স্বাধীনতা চাইছে কাশ্মীর। এখন নরেন্দ্র মোদী এসে কাশ্মীরিদের অধিকারই কেড়ে নিলেন। প্রতিবাদ তো হবেই।”

অবশ্য এই ঘটনা নিয়ে ব্রিটেনের ভারতীয় দূতাবাসের তরফে কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি। ভারত সরকারের তরফেও কোনও মন্তব্য করা হয়নি।

Comments are closed.