রবিবার, নভেম্বর ১৮

জঙ্গি নয়, ক্যালিফোর্নিয়ার বন্দুকবাজ একজন প্রাক্তন মার্কিন নৌ-সেনা কর্মী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ক্যালিফোর্নিয়ার পানশালায় হামলাকারী কোনও জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত নয়। ২৮ বছরের বন্দুকবাজ আমেরিকার প্রাক্তন নৌ-সেনা কর্মী। ক্যালিফোর্নিয়া পুলিশ জানাচ্ছে, খুব ঠাণ্ডা মাথায় পরিকল্পনা করে গুলি চালায় ওই বন্দুকবাজ। যা কেড়ে নিয়েছে ১১ জনের প্রাণ। গুলি চালানোর পর হামলাকারী নিজেই নিজেকে গুলি করে, পরে বন্দুকবাজ সহ ১২ জনের মৃত্যুর খবর ঘোষণা করে পুলিশ।

কেন এইভাবে হত্যালীলা  চলল, পুলিশের কাছে এখনও তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে জানা যাচ্ছে, ল্যান ডেভিড লং নামে ওই বন্দুকবাজ ২ দিন ধরে ক্যালিফোর্নিয়ার পানশালায় রেইকি করে।দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার থাউস্যান্ড ওকস শহরের  পানশালা বর্ডারলাইন বার অ্যান্ড গ্রিলে গুলি চালায় লং।

প্রথমে জানা যায়, লংকে গুলি করেছে ক্যালিফোর্নিয়া পুলিশ। পরে পুলিশই জানায় লং নিজেই নিজেকে গুলি করে। ঠান্ডা মাথায় গুলি চালাতে দেখেই লংকে জঙ্গি বলে মনে করা হয়। কোনওরকম স্লোগান বা চিৎকার না করেই পর পর গুলি চালাতে থাকে লং। পুলিশকে আসতে দেখে নিজে আত্মঘাতী হয়।

 

পুলিশ জানিয়েছে, অন্তত ৩০টি গুলি চালিয়েছিল বন্দুকবাজ লং।এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, বুধবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ পানশালার মূল হলটিতে ছুটে ঢোকে এক যুবক। ঢুকেই কালো একটি পিস্তল বার করে গুলি চালাতে শুরু করে। জায়গাটি ধোঁয়ায় ঢেকে গিয়েছিল। সম্ভবত স্মোক বম্বও ব্যবহার করা হয়েছিল। সেই যুবকই ২৮ বছরের লং। যাকে মাঝে মাঝেই ওই বারে আসতে দেখা যেত।

ক্যালিফোর্নিয়ার পানশালায় বন্দুকবাজের হামলায় নিহত ১৩

ক্যালিফোর্নিয়ার থাউসেন্ড ওকস  একটি শান্ত ও নির্জন শহর। মোটের উপর ধনী লোকেদেরই বসবাস এখানে। ধনীদের উপর রাগ করেই কি লংয়ের এর এই হামলা, না কি  এর পিছনে রয়েছে ব্যক্তিগত কারণ, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ক্যালিফোর্নিয়ায় বুধবার গভীর রাতে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে ১১ জনকে হত্যা করে লং। ঘটনার পর থেকে আতঙ্কের দিন রাত ক্যালিফোর্নিয়াবাসীর।

 

Shares

Comments are closed.