রাধারমণের শতাব্দী প্রাচীন গান ‘ভ্রমর কইও গিয়া’ মাতিয়েছিল তাজিকিস্তানও, তাজিক ভাষায় সেই গান শুনুন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: “ভ্রমর কইও গিয়া শ্রীকৃষ্ণ বিচ্ছেদের অনলে, অঙ্গ যায় জ্বলিয়ারে ভ্রমর কইও গিয়া।”

গানটা শোনেননি এমন মানুষ দুই বাংলায় মেলা ভার। প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণার প্রাক্তন সিনেমায়  বাংলার লোকসঙ্গীতের আধুনিক ধারার গায়ক সুরজিৎ গাওয়ার পর গানটি নিয়ে মাতামাতি তুঙ্গে উঠেছে। ইউটিউব ছয়লাপ হয়ে গেছে বিভিন্ন শিল্পীর কণ্ঠে গাওয়া এই গানটির ভিডিও অডিওতে।

অথচ গানটির বয়স একশো বছরেরও বেশি। লিখেছিলেন বর্তমান বাংলাদেশের সিলেটের সাধক কবি, বৈষ্ণব বাউল, ধামালি নৃত্য-এর প্রবর্তক লোককবি  রাধারমণ। আসল নাম ছিল রাধারমণ দত্ত পুরকায়স্থ (১৮৩৩ – ১৯১৫)। কয়েক হাজার গান লিখেছিলেন বাংলা লোকসঙ্গীতের পুরোধা রাধারমণ। অনেক জনপ্রিয় দেহতত্ত্ব, ভক্তিমূলক,ভজন, ধামাইল গানের জনক তিনি। তবুও কৃষ্ণ বিরহের ব্যথা থেকে তৈরি হওয়া গান “ভ্রমর কইও গিয়া’ তাঁর সব গানকে ছাপিয়ে গেছে। আধুনিক যুগে, ১৯৭০ সালে গানটি প্রথম গেয়েছিলেন পন্ডিত রামকানাই। তারপর ১৯৯০ সালে গাইলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী দিলরুবা খান। তারপর দুই বাংলার প্রায় সব শিল্পীই গানটি গেয়েছেন। শুধু বাংলার বুকে নয় বিদেশের মাটিতেও গানটির সুর আজও ভেসে বেড়ায়। 

তাজিক ভাষায়  ‘ভ্রমর কইও গিয়া’ গানটির ভিডিও

২০১৬ সালে রিলিজ হওয়া প্রাক্তন সিনেমায় সুরজিৎ-এর গান ইউটিউবের ভিউয়ার চার মিলিয়ন ছুঁইছুঁই। কিন্তু ২০১৪ সালেই তাজিকিস্তানের জনপ্রিয় শিল্পী নোজিয়া কারোমাতুল্লো, তাজিক ভাষায় গানটি গেয়ে তাজিকিস্তানের মানুষকে মোহিত করেছিলেন। রাধারমণের প্রাণ কাঁদানো সুর, কৃষ্ণ প্রেমের আকুতি কী ভাবে তাজাকিস্তানের শিল্পী নোজিয়া কারোমাতুল্লো-এর কন্ঠে ফুটে উঠেছে উপরে দেওয়া ইউটিউব ভিডিও থেকে শুনে নিন। অবাক হয়ে যাবেন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More