রবিবার, জানুয়ারি ১৯
TheWall
TheWall

ছোট্ট মেয়ের মাথায় হাত বুলিয়েই গির্জায় ঢুকল বিস্ফোরণকারী, বুঝতেই পারলেন না আশেপাশের কেউ

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পরনে কালো প্যান্ট আর হাল্কা নীল রংয়ের টি-শার্ট। পিঠে বাঁধা ব্যাকপ্যাক। রোগাপাতলা চেহারা। গালে হাল্কা দাড়ি। ধীরেসুস্থে হেঁটে চলেছে যুবক। খানিক এগোতেই ধাক্কা লাগলো একটি বাচ্চার সঙ্গে। পাশেই দাঁড়িয়ে বাচ্চাটির দাদু। হাসিমুখে বাচ্চা মেয়েটির মাথায় হাত বুলিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে চলে যুবক। ঢুকে পড়ে গির্জার ভিতর। তারপর কেউ কিছু বোঝার আগেই বিস্ফোরণে উড়িয়ে দেয় সেন্ট সিবেস্টিয়ান চার্চ।

সিনেমার স্ক্রিপ্ট নয়। এক্কেবারে ঘোর বাস্তব। সময় যত এগোচ্ছে, ততই শ্রীলঙ্কা বিস্ফোরণ সম্পর্কে সামনে আসছে নতুন নতুন তথ্য। এ বার একটি ভিডিও এসেছে প্রকাশ্যে। শ্রীলঙ্কার একটি লোকাল টেলিভিশন চ্যানেলে সম্প্রচারিত ওই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে বিস্ফোরণের একটু আগেই সেন্ট সিবেস্টিয়ানে গির্জায় ঢুকছে এক যুবক। কিন্তু তার হাঁটাচলা কিংবা এক্সপ্রেশন দেখে আশেপাশের কেউ বুঝতেই পারেননি যে খানিক পরে এই যুবকই মারাত্মক বিস্ফোরণ ঘটাবে গির্জায়। বরং আর পাঁচজনের মতো সেও ইস্টারের প্রার্থনাতে হাজির হয়েছে বলেই ধরে নিয়েছিলেন সকলে।

রাজধানী কলম্বো থেকে মাত্র ৪০ মিনিট দূরে নেগোম্বো-তে রয়েছে সেন্ট সিবেস্টিয়ান চার্চ। রবিবারের ধারাবাহিক বিস্ফোরণের প্রভাব পড়েছিল এই গির্জাতেও। নিমেষে তছনছ হয়ে গিয়েছিল গোটা এলাকা। ভিডিও দেখার পর পুলিশের অনুমান, সম্ভবত গির্জার তৃতীয় দরজা দিয়ে ঢুকেছিল সে। তারপরেই সব শেষ। ভিড়ে ঠাসা চ্যাপেলের ঘর মুহূর্তে শ্মশান হয়ে গিয়েছিল। যে বাচ্চাটির মাথায় ওই আত্মঘাতী জঙ্গি হাত বুলিয়ে দিয়েছিল, তার দাদু ফার্নান্ডো জানিয়েছেন, “ওর কাঁধে একটা ভারি ব্যাগ ছিল। বয়স আন্দাজ তিরিশ। চোখেমুখে লেগে সারল্য। আমার নাতনির মাথায় হাত বুলিয়ে এগিয়ে গেল। ঢুকে পড়ল চার্চে। ওর হাবভাবে কোনও অস্থিরতাই ছিল না। বরং শান্তভাবেই চার্চের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল। বুঝতেই পারিনি যে ও এমন সাংঘাতিক কিছু করতে যাচ্ছে।“

পুলিশের অনুমান, সে দিনের ধারাবাহিক বিস্ফোরণে সবচেয়ে বেশি লোক মারা গিয়েছেন এই সেন্ট সিবেস্টিয়ান চার্চেই। কারণ বিস্ফোরণের সময় গির্জায় চলছিল ইস্টার সানডে’র প্রার্থনা। ভিড়ে ঠাসা ছিল চ্যাপেলের ঘরে। স্থানীয় হাসপাতাল জানিয়েছে, ওই গির্জা চত্বর থেকেই উদ্ধার হয়েছে অন্তত ১০০টি দেহ। ইউনিসেফ-ও জানিয়েছে, সেন্ট সিনেস্টিয়ান গির্জাতেই বিস্ফোরণে নিহত হয়েছে ২৭জন শিশু। গুরুতর জখম অবস্থায় আরও ১০জনকে ভর্তি করা হয়েছে স্থানীয় হাসপাতালে।

Share.

Comments are closed.