বুধবার, মার্চ ২০

কোমায় থাকা অবস্থাতেই সন্তানের জন্ম দিলেন মহিলা!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রায় এক দশক ধরে কোমায় ছিলেন মহিলা। কিন্তু কোমায় থাকা অবস্থাতেই ২০১৮-র ২৯ ডিসেম্বর তিনি জন্ম দিয়েছেন এক পুত্র সন্তানের। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, সুস্থও রয়েছে নবজাতক। কিন্তু কোমায় থাকাকালীন একজন কীভাবে গর্ভবতী হতে পারেন তাই নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন। এর পাশাপাশি হাসপাতালের নিরাপত্তাও দাঁড়িয়েছে প্রশ্ন চিহ্নের মুখে।

ঘটনাটি ঘটেছে সুদূর অ্যারিজোনা প্রদেশে। পুলিশের অনুমান, সম্ভবত যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন ওই মহিলা। ইতিমধ্যেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে তদন্তও শুরু করেছে পুলিশ। ইউনাইটেড স্টেটসের অ্যারিজোনা প্রদেশের Hacienda Health Care-এ ভর্তি ছিলেন ওই মহিলা। পুলিশ জানিয়েছে, তাঁর পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

এ দিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, গোটা ঘটনার কোনও কিছুই নাকি জানতেন না তাঁরা। এমনকী কর্তৃপক্ষের দাবি, মহিলা যে গর্ভবতী হয়েছে সেটাও জানা ছিল না তাঁদের। গত ২৯ ডিসেম্বর আচমকাই ওই মহিলার ওয়ার্ড থেকে গোঙানির শব্দ শুনতে পান দায়িত্বে থাকা এক নার্স। এরপরেই পরীক্ষা করে জানা যায় যে কোমায় থাকা ওই মহিলা সন্তানসম্ভবা। সে দিনই সন্তানের জন্মও দেন তিনি।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, যেহেতু ওই মহিলা কোমায় ছিলেন, তাই ২৪ ঘণ্টাই তাঁর খেয়াল রাখার জন্য কোনও না কোনও ব্যক্তি ওই ওয়ার্ডে ঢুকতেন। তাঁদের মধ্যে থাকতেন অনেক পুরুষও। পুলিশের অনুমান, সম্ভবত এই ব্যক্তিদের মধ্যেই কেউ ওই মহিলার সঙ্গে যৌন সংসর্গে লিপ্ত হয়েছিলেন। আর তার ফলেই গর্ভবতী হয়ে পড়েন মহিলা। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। হাসপাতালের তরফেও জানানো হয়েছে, মহিলা যাতে সুবিচার পান এবং ঘটনার সঠিক তদন্তের জন্য পুলিশে সঙ্গে সবরকম সহযোগিতা করবেন কর্তৃপক্ষ।

Shares

Comments are closed.