সোমবার, জানুয়ারি ২০
TheWall
TheWall

পুজো মিটতেই পথে শুভেন্দু, তৃণমূলকর্মী খুনের প্রতিবাদে পাঁশকুড়ায় বিরাট মিছিল পরিবহণমন্ত্রীর

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শারোদৎসব মিটতে না মিটতেই রাজনৈতিক কর্মসূচি শুরু করে দিলেন রাজ্যের পরিবহণ ও সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূলকর্মী কুরবান শাহ খুনের প্রতিবাদে এ দিন মিছিল করেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক। পাঁশকুড়া পিডব্লিউডি মাঠ থেকে রেল স্টেশন পর্যন্ত এই তিন কিলোমিটার পদযাত্রায় দশ হাজারের বেশি মানুষ এ দিন পা মেলান।

নবমীর রাতে পার্টি অফিসের ভিতর খুন হন পাঁশকুড়ার তৃণমূল নেতা কুরবান শাহ(৩২)। মাইসোরা পার্টি অফিসে ঢুকে তাঁকে গুলি করে মারে দুষ্কৃতীরা। রাত্রি সাড়ে দশটা নাগাদ পার্টি অফিসে বসেছিলেন পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি কুরবান। রাত গড়াতে আস্তে আস্তে ঘরে ফিরছিলেন এক একজন করে। জনা পাঁচেক কর্মীর সঙ্গে ঘরে ফেরার তোড়জোড় করছিলেন কুরবানও।

তাঁর অনুগামীরা জানান, হঠাৎই জনা সাতেক দুষ্কৃতী অফিসের সামনে বাইক দাঁড় করিয়ে সটান ঢুকে পড়ে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই দুষ্কৃতীরা কুরবানকে লক্ষ্য করে প্রায় পাঁচ রাউণ্ড গুলি চালায়। পার্টি অফিসেই লুটিয়ে পড়েন কুরবান। হকচকিয়ে যাওয়া কুরবান অনুগামীরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই দুষ্কৃতীরা বাইকে করে চম্পট দেয়। ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় তাঁর।

ওই খুনের ঘটনায় মূল আসামীরা এখনও অধরা বলে অভিযোগ তৃণমূল নেতাকর্মীদের। এ দিন পদযাত্রা শেষে শুভেন্দু বলেন, “পুলিশের উপরে আমাদের আস্থা রাখতে হবে। মূল ষড়যন্ত্রকারীদের ধরতে পারলেই সবাইকে ধরা সম্ভব হবে। পুলিশ সেই কাজ করছে।” তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই খুন করেছে কুরবানকে। যদিও গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

লোকসভা ভোটে ধাক্কা খাওয়ার পরই শুভেন্দুর দায়িত্ব বাড়িয়ে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গোটা জঙ্গলমহলের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে এই তরুণ নেতার কাঁধে। তারপর থেকেই কার্যত জেলায় জেলায় চষে বেড়াচ্ছেন নন্দীগ্রাম আন্দোলনের অন্যতম নেতা। পুজোর সময়ে সামাজিক নানান কর্মসূচিতে থাকলেও বিশেষ রাজনৈতিক কর্মসূচি ছিল না তাঁর। কিন্তু উৎসব মিটতে না মিটতেই ফের রাস্তায় তিনি।

পড়ুন, দ্য ওয়ালের পুজোসংখ্যার বিশেষ লেখা…

তাহু ফল, ঐশ-রোষ ও পিগমি সমাজ

Share.

Comments are closed.