মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫

রাজ্যের টাকা পাওনা আছে, তাই দিল্লি যাচ্ছি: বিমানবন্দরে মমতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সোমবার দুপুরে হঠাৎই জানা যায়, মঙ্গলবার দিল্লি যাবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিকেলের দিকে এ-ও জনা যায়, বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করবেন মমতা। কিন্তু অ্যাজেন্ডা স্পষ্ট ছিল না। স্পষ্ট করেনি নবান্নও। মঙ্গলবার দুপুরে কলকাতা বিমানবন্দরে পৌঁছে মুখ্যমন্ত্রী নিজেই জানালেন তাঁর দিল্লি যাত্রার কার্যকারণ।

এ দিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যের কিছু টাকা পাওনা আছে। একই সঙ্গে রয়েছে রাজ্যের নাম পরিবর্তনের বিষয়টিও। এ সব ব্যাপারে প্রশাসনিক কাজেই তিনি দিল্লি যাচ্ছেন।

তাঁর কথায়, “আমি তো কোথাও যাই না। ৩৬৫ দিন এখানেই থাকি। একটা দায়িত্বে আছি বলে থাকতে হয়। কিন্তু দিল্লি রাজধানী। ওখানে সংসদ, রাষ্ট্রপতি ভবন, প্রধানমন্ত্রী- যেতে তো হয়ই। আমি অনেকদিন পর দিল্লি যাচ্ছি।”

লোকসভা ভোটের পর প্রধানমন্ত্রী পদে নরেন্দ্র মোদীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল বংলার মুখ্যমন্ত্রীকে। মমতা যাবেন বলে স্থির করেছিলেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে জানতে পারেন বাংলায় রাজনৈতিক হিংসায় খুন হওয়া বিজেপি কর্মীদের পরিবারের সদস্যদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মোদী। তা শুনেই দিল্লি সফর বাতিল করে দেন তিনি। তার পর আর দিল্লি যাননি।

বিজেপি-র তরফে বলা হচ্ছে, মমতা কেন দিল্লি যাচ্ছে সেটা ওপেন সিক্রেট। গেরুয়া শিবিরের নেতাদের অনেকে মনে করছেন, রাজীব কুমারকে বাঁচাতেই দিদির এই দিল্লি দরবার। যদিও তৃণমূল নেতারা বলছেন, এটা একেবারেই রুটিন সফর। একজন মুখ্যমন্ত্রী দেশের রাজধানীতে যাবেন, এতে এত অন্য মানে খোঁজার কী আছে?

Comments are closed.