শুক্রবার, আগস্ট ২৩

চোপড়ায় চাঞ্চল্য, গুলিবিদ্ধ স্বর্ণ ব্যবসায়ী, লুঠ নগদ টাকা ও সোনার গয়না

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সোনার দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার সময়েই পথ আটকাল দুষ্কৃতীরা। তারপর পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি। রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়লেন স্বর্ণ ব্য়বসায়ী। মঙ্গলবার রাতের এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে উত্তর দিনাজপুরের চোপড়ায়। গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, চোপড়ার বর্মন বস্তি এলাকার বাসিন্দা গোপাল বর্মন। দাসপাড়ায় তাঁর সোনার দোকান রয়েছে। ঘটনার দিন দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। সেই সময় মোটরবাইকে চেপে অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজন যুবক তাঁর রাস্তা আটকে দাঁড়ায়। প্রথমে কিছুক্ষণ কথা কাটাকাটি হয়। পরে আচমকাই গোপাল বাবুকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় একজন। তাঁর কাছে থাকা সোনার গয়না ও নগদ টাকা ছিনতাই করে পালায় দুষ্কৃতীরা।

গুলির শব্দ শুনে ছুটে আসেন এলাকার বাসিন্দারা। তাঁরা জানিয়েছেন, দুষ্কৃতীদের ধরা যায়নি। লোকজনকে ছুটে আসতে দেখে তারা চম্পট দেয়। রক্তাক্ত গোপাল বাবুকে প্রথমে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অনেকটাই রক্তক্ষরণ হয়েছে তাঁর। অবস্থা আশঙ্কাজনক।

স্বর্ণ ব্যবসায়ীর পরিবার জানিয়েছে, সোনার গয়না ছাড়াও নগদ প্রায় পাঁচ লক্ষ টাকা লুঠ করে নিয়ে পালিয়েছে আততায়ীরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে চোপড়া থানার পুলিশ। দুষ্কৃতীদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

Comments are closed.