শুক্রবার, নভেম্বর ১৫

আরও ভয়ঙ্কর বুলবুল, আছড়ে পড়বে সাগরদ্বীপেই, পথ বদলের সম্ভাবনা নেই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সাগরদ্বীপ থেকে আর মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। আলিপুর আবহয়ায়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে ঘূর্ণিঝড়ের গতিপথ পরিবর্তনের আর কোনও সম্ভাবনা নেই। সাগরদ্বীপেই আছড়ে পড়বে বুলবুল। আপাতত ১৩৫ কিলোমিটার গতিবেগে ধেয়ে আসছে এই ঘূর্ণিঝড়। তবে ল্যান্ডফল হওয়ার আগে গতিবেগ কিছুটা কমতে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। গতিবেগ কমে প্রতি ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন আবহবিদরা।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে বুলবুলের প্রভাবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে সাগর, ধবলাহাট, শিবপুর, সাগর ব্লকের চেমাগুড়ি, মৌসুনি, বকখালি এবং ফ্রেজারগঞ্জ এলাকায়। সন্ধে ৬টা থেকে ৮টার মধ্যে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আছড়ে পড়ার কথা সাগর, ধবলাহাট, শিবপুর, সাগর ব্লকের চেমাগুড়ি, মৌসুনি এইসব এলাকায়। ৭টা থেকে ১০টার মধ্যে ঝড় পৌঁছবে বকখালি ও ফ্রেজারগঞ্জে। ৮টা থেকে সাড়ে দশটার মধ্যে ঝড়ের আওতায় পড়বে ব্রজবল্লভপুর, শ্রীধরনগর, হেরমবাগ, পাথরপ্রতিমা। রাত ১১টা থেকে ২টোর মধ্যে তীব্রতা কমবে বুলবুলের। সেইসময় ক্যানিং মহকুমার উপর দিয়ে বয়ে যাবে এই ঘূর্ণিঝড়। ভোর ৪টে নাগাদ দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকে ঝড় সরে যাবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, সন্ধে ৭ টা ২০ মিনিটে সাগরদ্বীপ থেকে ৪০ কিমি দূরে অবস্থান করছিল বুলবুল। দিঘা থেকে ৮০ কিমি ও কলকাতা থেকে ১৩৫ কিমি দূরে অবস্থান করছিল।

দুর্যোগ মেকাবিলা করতে তৈরি নৌবাহিনী। বঙ্গোপসাগরে মোতায়েন হয়েছে নৌসেনার এয়ার ক্রাফট। টহলদারি চলছে বিশাপত্তনমেও। পরিস্থিতির উপর নজর রাখতে নবান্নে খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম। শনিবার বিকেলেই সেখানে হাজির হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উপকূলবর্তী বিভিন্ন জেলায় চলছে কড়া নজরদারি। কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে রেলের তরফেও। দিঘা, মন্দারমনি, তাজপুর এলাকায় চলছে কড়া নজরদারি।

শনিবার মাঝরাতে আছড়ে পড়ার কথা ছিল ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের। তবে সময় এগিয়ে সন্ধেবেলাতেই বুলবুল আছড়ে পড়বে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। শনিবার সকাল থেকেই টানা বৃষ্টির সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বইছে কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায়। নাগাড়ে বৃষ্টির সঙ্গে উপকূল এলাকায় দিনের বেলাতেই প্রায় ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বইছিল ঝোড়ো হাওয়া। সন্ধের পর থেকে বেড়েছে হাওয়ার গতিবেগ। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে সাগরদ্বীপের দিকে বাঁক নিয়েছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল।

দুর্যোগের জন্য শনিবার সন্ধে ৬টা থেকে রবিবার সকাল ৬টা অর্থাৎ ১২ ঘণ্টার জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে কলকাতা বিমানবন্দর। বাতিল করা হয়েছে সব উড়ান। পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি বাংলাদেশেও আছড়ে পড়বে বুলবুল। ইতিমধ্যেই পড়শি দেশের খেপুপাড়ার দিকে ঘূর্ণিঝড় বাঁক নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

Comments are closed.