সোমবার, আগস্ট ২৬

পাল্টাচ্ছে নিম্নচাপের অভিমুখ, বুধবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে কমবে বৃষ্টির পরিমাণ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বুধবার থেকে বৃষ্টি কমবে দক্ষিণবঙ্গে। এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। রবিবারই হাওয়া অফিস পূর্বাভাস দিয়েছিল আগামী ৭২ ঘণ্টা প্রবল ঝড়বৃষ্টি হবে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়।

কিন্তু আবহবিদরা জানিয়েছেন, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের অভিমুখ এখন ওড়িশা উপকূলের দিকে। তাই ওড়িশা উপকূলে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। জারি হয়েছে সতর্কতাও। তবে হাওয়া অফিস জানিয়েছে, দক্ষিণবঙ্গের উপকূলের জেলাগুলিতেও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু কলকাতা এবং অন্যান্য জেলাতে বুধবার থেকে কমবে বৃষ্টির পরিমাণ।

তবে মঙ্গলবার কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু ভারী নয়, মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, দুই ২৪ পরগনা, দুই বর্ধমান, হাওড়া এবং হুগলিতে। মূলত পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে মঙ্গলবার বৃষ্টি হলেও কলকাতায় সে ভাবে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তবে হাওয়া অফিস জানিয়েছে, নিম্নচাপ ওড়িশা উপকূলে সরে গেলেও মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে ভারী না হলেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। তবে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে।

সাধারণত প্রতি বছর ১ জুন কেরলে ঢোকে বর্ষা। আর ১৫ জুনের মধ্যে বঙ্গে আসে বর্ষা। তবে এ বছর নির্ধারিত সময়ের তুলনায় ১ সপ্তাহ দেরিতে ৮ জুনে কেরলে ঢুকেছিল দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু। ফলে বঙ্গেও বর্ষা আসতে দেরি হয়েছিল। ১৪ বছরের রেকর্ড ভেঙে এ বার বঙ্গে দেরিতে এসেছিল বর্ষা। তারপর অবশ্য রবিবার তৈরি হওয়া নিম্নচাপ সৃষ্টি হওয়ার ফলে আশা জেগেছিল রাজ্যবাসীর মনে। হাওয়া অফিসও জানিয়েছিল, এই নিম্নচাপের প্রভাবে ভালোই বৃষ্টি হবে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। ভ্যাপসা গরমে থেকে স্বস্তি পাবেন দক্ষিণবঙ্গবাসী। তবে সোমবার হাওয়া অফিস জানিয়েছে, নিম্নচাপের অভিমুখ পরিবর্তনের ফলে বুধবার বৃষ্টির পরিমাণ কমবে দক্ষিণবঙ্গে। তবে একেবারেই বৃষ্টি হবে না তা নয়। মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে বর্ষাড় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে বিভিন্ন জেলায়।

Comments are closed.