রবিবার, ডিসেম্বর ১৫
TheWall
TheWall

বিবেকানন্দর মূর্তিতে কালি লেপে দেওয়া হল জেএনইউতে! বাদ গেল না গালমন্দও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশের অন্যতম উৎকর্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নয়াদিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বামী বিবেকানন্দর মূর্তি ভাঙচুর করা হল। তাতে কালি লেপে গালমন্দও লিখে দেওয়া হল! কে বা কারা তা করেছে তা এখনও নিশ্চিত ভাবে জানা যায়নি। তবে গালমন্দের বহর দেখে বোঝা যাচ্ছে অসন্তোষ গেরুয়া শিবিরের দিকেই। মূলত বিজেপি ও সঙ্ঘ পরিবারকে নিশানা করেই কটু কথা লেখা হয়েছে।

জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ব্লকের সামনে এই মূর্তি প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছিল। কিন্তু এই লজ্জাজনক ঘটনার পরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আপাতত মূর্তিটি কাপড় দিয়ে ঢেকে দিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে দোষীদের খুঁজে বের করার চেষ্টা হচ্ছে। তাঁরা কেউ যদি বিশ্ববিদ্যালের ছাত্র হন, তা হলে কঠোরতম শাস্তি হিসেবে বহিষ্কারও করা হতে পারে।

এ দিকে বিবেকানন্দর মূর্তিকে কালিমালিপ্ত করার ঘটনায় তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছে শিক্ষা মহলে। ছিছিক্কার পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতেও।

জেএনইউ-এর হস্টেলের ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে গত কয়েক দিন ধরেই উত্তপ্ত ছিল জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়ালকে সোমবার পাঁচ ঘণ্টা আটকেও রেখেছিলেন ছাত্রছাত্রীরা। শেষপর্যন্ত ছাত্র বিক্ষোভের মুখে পড়ে ফি বৃদ্ধির হার কমানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তার মধ্যেই দেখা যায়, কেউ বা কারা স্বামী বিবেকানন্দর মূর্তিকে বিকৃত করে দিয়েছে।

গত কালই আন্দোলনকারীরা বিধ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি দেখা করেননি বলে ছাত্রছাত্রীদের অভিযোগ। এরপরই জানা যায়, একদল ছাত্রছাত্রী প্রশাসনিক ভবনে উপাচার্যের ঘরের কাছে চলে যান। কোনও আধিকারিককে দেখতে না পেয়ে উপাচার্যের ঘরের বাইরের দেওয়ালে লিখে দেওয়া হয়, “আপনি আমাদের উপাচার্য নন। আপনি আপনার সঙ্ঘে ফিরে যান।”

গোট ঘটনায় ক্ষুব্ধ কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছে, তদন্ত করে দেখা হবে কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে বিশ্ববিদ্যালয়।

Comments are closed.