বৃহস্পতিবার, জুন ২০

চাপে মত বদল! পরের বছর নয়, এ বছর নকআউট থেকেই চ্যাম্পিয়নস লিগে VAR

দ্য ওয়াল ব্যুরো : রাশিয়া বিশ্বকাপেই প্রথমবারের জন্য ব্যবহার করা হয় ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি বা ভার ( VAR )। সুফলও মেলে। কিন্তু তার পরেও লা লিগা ছাড়া অন্য কোনও লিগে শুরু হয়নি এই প্রযুক্তি। এই নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন অনেক বর্তমান ও প্রাক্তন ফুটবলার। শেষ পর্যন্ত চাপের মুখে পড়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের নক আউট পর্ব থেকে আসতে চলেছে ভার।

বিশ্বকাপে রেফারির সহকারীর ভূমিকায় ভারের পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া। হ্যান্ডবল, পেনাল্টি, প্লে অ্যাক্টিং, সব ধরা পড়েছে ভারের চোখে। আর সেই কারণেই অনেক বিশেষজ্ঞ প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগা, বুন্দেশলিগা, চ্যাম্পিয়নস লিগে ভারের ব্যবহার নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। কিন্তু লা লিগা ছাড়া আর কোথাও ব্যবহার করা শুরু হয়নি এই প্রযুক্তি। লা লিগায় ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকবার ভারের সাহায্য নিয়ে নিজেদের সিদ্ধান্ত বদল করছেন রেফারি।

আরও পড়ুন বিরাটদের ভীতু বাদুড়ের সঙ্গে তুলনা অজি মিডিয়ার, বিদ্রুপ শুনতে হলো ঘরেই

কিন্তু অন্য লিগগুলো তো বটেই চ্যাম্পিয়নস লিগেও ভার ব্যবহার না হওয়ায় বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। আর যতবার বিতর্ক হয়েছে, দাবি উঠেছে ভার ব্যবহারের। অবশ্য নিজেদের মনোভাব থেকে সরে আসতে হয়েছে উয়েফাকে। উয়েফার তরফে জানানো হয়েছে, চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্ব থেকেই ব্যবহার শুরু হবে এই প্রযুক্তির। নকআউটে যেন কোনও টিমকে কোনও খারাপ সিদ্ধান্তের খেসারত দিতে না হয়, তার জন্যই এই সিদ্ধান্ত। নাহলে পরের বছর গ্রুপ লিগ থেকেই ভার ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল আগে।

প্রিমিয়ার লিগ, বুন্দেশলিগাতেও পরের মরসুম থেকে ব্যবহার করা হবে এই ভার। উয়েফার এই সিদ্ধান্তের পরেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গিয়েছে। একদল যেমন বলছেন, এতদিনে বুদ্ধি হলো উয়েফার। এই সিদ্ধান্ত মরসুমের শুরু থেকে নিলে বেশ কিছু সিদ্ধান্তের ফল ভুগতে হতো না দলগুলোকে। আরেক দলের বক্তব্য, ভার প্রযুক্তি চালু হলেও শেষ পর্যন্ত তা ব্যবহার হবে কি হবে না, তা নির্ভর করছে রেফারির উপর। আর এই মরসুমে রেফারির যা নমুনা, তাতে কতটা কী উপকার হবে তা বলা যাচ্ছে না।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Comments are closed.