মঙ্গলবার, নভেম্বর ১২

মেয়েদের গলা করে ছেলে ঠকানোর বিদ্যে, ১২ লক্ষ টাকা প্রতারণা করে ধৃত যুবক

দ্য ওয়াল ব্যুরো, হুগলি: নাম তানিয়া রায়। ফেসবুকের ডিপি থেকে ম্যাট্রিমনি সাইটের প্রোফাইল ছবি—এক সুন্দরী তরুণী তানিয়া। এ সব বিশ্বাস করেই কাল হয়েছে ব্যান্ডেলের যুবক দীপঙ্কর দে-র। বেসরকারি সংস্থার কর্মচারী দীপঙ্কর বুঝতেও পারেনি নকল মেয়ের ছবি আর মেয়ের গলা নকল করে তাঁর থেকে দিনের পর দিন টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে এক যুবক! অবশেষে সেই যুবককে গ্রেফতার করল হুগলি পুলিশ। ধৃতের নাম রনি দাস। সোম্বার রাতে ঠাকুরপুকুর থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতকে মঙ্গলবার চুঁচুড়া আদালতে তোলা হলে বিচারক চার দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

বছর দু’য়েক আগে ম্যাট্রিমনি সাইটে অ্যাকাউন্ট করেন দীপঙ্কর। পাত্রীর খোঁজেই পরিচয় হয় ‘তানিয়া’র সঙ্গে। কয়েক দিনের মধ্যেই ম্যাট্রিমনি সাইট থেকে কথোপকথন চলে আসে হোয়াটস অ্যাপে। কিন্তু দেখা হয়নি তাঁদের। ফোনেই এগোতে থাকে বিয়ের কথা। দীপঙ্কার যখন প্রায় মন দিয়েই ফেলেছেন ‘তানিয়া’কে তখনই প্রথম টাকা চাওয়া হয় তাঁর থেকে। অজুহাত- মায়ের শরীর খারাপ। এরপর মায়ের শরীর খারাপ, বাবার শরীর খারাপ বলে চলতে থাকে টাকা নেওয়া। দিতে থাকেন দীপঙ্কর।

দীপঙ্কর জানিয়েছেন, বারবার দেখা করতে বললেও নানা অজুহাতে এড়িয়ে যেত ‘তানিয়া।’ মাস দু’য়েক আগে থেকে সমস্ত যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয় ‘তানিয়া’র তরফ থেকে। চুঁচুড়া থানায় অভিযোগ জানান দীপঙ্কর। পুলিশকে প্রতারিত যুবক জানিয়েছেন, ধাপে ধাপে মোট ১২ লক্ষ টাকা তিনি দিয়েছেন ‘তানিয়াকে।’ হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর ট্র্যাক করে পুলিশ গতকাল গ্রেফতার করে ওই যুবককে।

পুলিশ জানিয়েছে, জেরার মুখে বছর ২৩-এর ওই যুবক জানিয়েছে, মহিলার গলা নকল করাটাই তার মূল পুঁজি। এটা ব্যবহার করেই আরও অন্তত আট-দশজনের সঙ্গে এমন প্রতারণা করেছে সে। হেফাজতে নিয়ে তাকে আরও জেরা করবে পুলিশ। দেখবে আর কার কার সঙ্গে এই ঘটনা ঘটিয়েছে সে।

পড়ুন, দ্য ওয়ালের পুজোসংখ্যার বিশেষ লেখা…

Comments are closed.