মঙ্গলবার, নভেম্বর ১২

এখনই আসছে না শীত, ৪৮ ঘণ্টায় হেরফের নেই তাপমাত্রায়, জানাল হাওয়া অফিস

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এখনই আসছে না শীত। দেরি রয়েছে দিন দুই-তিন।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তাপমাত্রার বিশেষ হেরফের হবে না। তবে ৩ নভেম্বর বা তারপর থেকে একধাক্কায় পারদ নামতে পারে ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মূলত প্রভাব পড়বে দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোতে। বাকি জেলায় এখনই আসছে না শীত। তাপমাত্রারও বিশেষ পার্থক্য লক্ষ্য করা যাবে না বলেই জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

আগামী রবিবার ৩ নভেম্বর ছটপুজো। সেদিন বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। আবহাওয়া শুষ্কই থাকবে। তবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায় হাল্কা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে দক্ষিণবঙ্গে আপাতত বৃষ্টির কোনও পূর্বাভাস নেই।

কালীপুজোর আগে থেকেই বাতাসে শুষ্কতার পরিমাণ বেড়েছে। ভোররাত থেকে শুরু করে সকালের দিকে বেশ ঠান্ডা হাওয়াও বইছে। প্রায় সারাক্ষণই বাতাসে একতা শিরশিরানি ভাব। আবহাওয়ার পরিবর্তন দেখে অনেকেই মনে করেছিলেন শীত বোধহয় এসে গিয়েছে। তবে এত তাড়াতাড়ি যে শীত আসছে না সে কথা স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

পরিসংখ্যান হোক বা ট্রেন্ড, একটা সময় দুর্গাপুজোর পর থেকেই বাতাসে একটা শিরশিরানি অনুভব করতে পারতেন দক্ষিণবঙ্গবাসী। কালীপুজোর আগে তো মোটামুটি ঠান্ডাও পড়ে যেত। উত্তরবঙ্গে পারদ নেমে যেত আরও বেশি। মরশুমের প্রথম শীতে শরীর যেন খারাপ না হয় সে জন্য ছোট্ট শিশুর দেখভালের প্রতি বিশেষ নজর দিতেন মা-বাবারা। কিন্তু গত কয়েক বছরে সে সব দৃশ্য দেখা যায়নি দক্ষিণবঙ্গে। বরং শীতের আশায় হাপিত্যেশ করেছে আমজনতা। কালীপুজো, ভাইফোঁটা সব পেরিয়ে গেলেও শীতের দেখা মিলেছে বহু দেরিতে।

চলতি মরশুমে বর্ষার মতোই শীতও রেকর্ড ব্রেকিং দেরিতে আসবে কি না সে ব্যাপারে অবশ্য এখনই স্পষ্ট করে কিছু জানায়নি হাওয়া অফিস। তবে শীত যে একেবারে দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে না সেটা স্পষ্ট করে দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

পড়ুন ‘দ্য ওয়াল’ পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯ – এ প্রকাশিত গল্প

শেষ ট্রাম

Comments are closed.